সাকিব জানালেন ‘সুসংবাদ’|110382|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৯ অক্টোবর, ২০১৮ ১৮:৪৯
সাকিব জানালেন ‘সুসংবাদ’
ক্রীড়া প্রতিবেদক

সাকিব জানালেন ‘সুসংবাদ’

মেলবোর্নের হাসপাতালে ভর্তি সাকিব আল হাসান। ছবি: সংগৃহীত

স্বস্তি। সুখবর। সব ঠিক থাকলে হয়তো তিন মাস পরই ব্যাট হাতে নিতে পারবেন সাকিব আল হাসান। ভাগ্য আরো ভালো থাকলে হাতের ইনজুরিতে অস্ত্রোপচারও লাগবে না। সাকিব নিজেই অস্ট্রেলিয়া থেকে মঙ্গলবার জানিয়েছেন, টেস্টের রিপোর্ট সব খুব ভালো এসেছে। আপাতত আর দুশ্চিন্তার কিছু নেই। বাংলাদেশ অধিনায়কের আঙুলের চোটের সেরে ওঠা নিয়ে খবরটা সত্যিকার অর্থেই ‘সুসংবাদ’।

‘রিপোর্ট সব ভালো। ইনফেকশন নিয়ন্ত্রণে আছে। তবে পুরো সেরে উঠতে সময় লাগবে’ মেলবোর্নের হাসপাতালের বেড থেকে মোবাইলে দেশের টেস্ট ও টি-টুয়েন্টি অধিনায়ক মঙ্গলবার জানিয়েছেন এই কথা।

এখন প্রশ্ন আসবে আসলে কতোদিন লাগবে সাকিবের সেরে উঠতে? সেটা এই মুহূর্তে বলা খুবই কঠিন। তবে এইটুকু বলা যাচ্ছে যে সবকিছু ঠিক থাকলে তিন মাস পর ব্যাট ধরতে পারবেন বিশ্বসেরা অল রাউন্ডার। চিকিৎসকরা কঠোর সতর্কতা অবলম্বন করতে বলেছেন। তাদের নির্দেশ, কোনোভাবেই আগামী তিন মাসের মধ্যে ব্যাট ধরতে পারবেন না সাকিব।

সাকিবের আঙুলের সংক্রমণ, কি হয় না হয়, এটাই বাংলাদেশের ক্রিকেটের প্রথম খবর গেল কিছুদিন ধরে। গত জানুয়ারিতে ঢাকায় ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে বা হাতের কড়ে আঙুলে চোট পান সাকিব। এরপর সময় লাগে সেরে উঠতে। কিন্তু গত মাসের এশিয়া কাপে ওখানে ইনফেকশন নিয়েই খেলেছিলেন। অবস্থা খারাপ হওয়ায় টুর্নামেন্টের মাঝপথে দেশে ফিরে আসতে হয়। দেশে চিকিৎসা নিয়ে মেলবোর্নে যান। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক গ্রেগ হয় চিকিৎসা করছেন।

৪৮ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণ সময়েই সাকিবের বেশ উন্নতি চোখে পড়েছে। রিপোর্টও এসেছে ভালো।  আঙুলের চামড়া উঠতে শুরু করেছে। সাতদিন তাকে হাসপাতালে থাকতে হবে। মানে রোববার পর্যন্ত।  এই সাত দিন অ্যান্টিবায়োটিক ইনজেকশন চলবে। তারপর অবস্থা দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন চিকিৎসকরা।

রোববার রাতেই সাকিবের দেশের বিমান ধরার কথা। এখন এটা বলা যাচ্ছে যে আগামী তিন মাসের মধ্যে সাকিবের আঙুলের ইনফেকশন পুরো সেরে গেলে এবং তিনি পুরো ব্যথামুক্ত হয়ে গেলে অস্ত্রোপচার নাও লাগতে পারে। আর ব্যথা থাকলে অস্ত্রোপচার লাগবেই।

তারপরও যতোটা উন্নতির খবর মিলেছে দেশের ক্রিকেটের জন্য তা বড় ‘সুসংবাদ’ই বটে।