হাতিরঝিলে অবৈধ স্থাপনা অপসারণ রুল নিষ্পত্তির নির্দেশ|110409|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৪ অক্টোবর, ২০১৮ ১৯:০৫
হাতিরঝিলে অবৈধ স্থাপনা অপসারণ রুল নিষ্পত্তির নির্দেশ
অনলাইন ডেস্ক

হাতিরঝিলে অবৈধ স্থাপনা অপসারণ রুল নিষ্পত্তির নির্দেশ

রাজধানীর হাতিরঝিল-বেগুনবাড়ি প্রজেক্টের লে-আউট প্ল্যানের বাইরে থাকা অবৈধ স্থাপনা অপসারণে হাইকোর্ট রুল নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছে আপিল বিভাগ।

দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলীর নেতৃত্বে আপিল বিভাগ রোববার এই আদেশ দেয়। বিষয়টি নিয়ে হাইকোর্টের দেয়া রুল দুই মাসের মধ্যে নিষ্পত্তির জন্য এ আদেশ দেয়া হয়েছে। খবর: বাসস।

আইনজীবী খুরশীদ আলম খান জানান, বিষয়টি নিয়ে হাইকোর্টের আদেশ বিষয়ে ১২ জন ব্যবসায়ীর পক্ষে লিভ টু আপিল করা হয়েছিল। যারা রাজউক থেকে বরাদ্দ নিয়ে ওইখানে ব্যবসা করেন। রাজউক ভাড়া-পজেশন বাবদ এসব ব্যবসায়ীর কাছ থেকে সমুদয় অর্থ নিয়েছে। কিন্তু হাইকোর্টের রিটে ব্যবসায়ীদের পক্ষভুক্ত করা হয়নি। পরে যখন আদেশটি জানতে পারলাম, তখন রাজউকের অ্যালটমেন্ট অর্ডার ও ভাড়ার কাগজপত্র দেখিয়ে লিভ টু আপিল করেছি।

তিনি বলেন, হাতিরঝিল-বেগুনবাড়ি প্রজেক্টের লে-আউট প্ল্যানের বাইরে থাকা স্থাপনা অপসারণে চেম্বার কোর্ট স্থিতাবস্থা দিয়েছিল। স্থিতাবস্থা বজায় রেখে হাইকোর্ট রুল নিস্পত্তিতে আজ আদেশ দিয়েছে আপিল বিভাগ।

জনস্বার্থে দায়ের করা এক রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ১০ সেপ্টেম্বর হাতিরঝিল-বেগুনবাড়ি প্রজেক্টের লে-আউট প্ল্যানের বাইরে থাকা অবৈধ স্থাপনা অপসারণে নির্দেশনা দিয়ে হাইকোর্ট আদেশ দেয়। এছাড়া রুলও জারি করে আদালত। রুলে হাতিরঝিল-বেগুনবাড়ি প্রজেক্টে লে-আউট প্ল্যানের বাইরে থাকা স্থাপনা নির্মাণ বন্ধে এবং লে-আউট প্ল্যান অনুসারে হাতিরঝিল-বেগুনবাড়ি প্রজেক্টকে রক্ষায় কেনো নির্দেশ দেয়া হবে না-তা জানতে চায় আদালত।

রিট আবেদনের পক্ষের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ সাংবাদিকদের জানান, লে-আউট প্ল্যানের নির্দেশনার বাইরে কতিপয় অবৈধ প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম চললেও রাজউক নিস্ত্রিয় থাকায় প্রতিবেদন গত ১ আগস্ট গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়। ওই প্রতিবেদন সংযুক্ত করে জনস্বার্থে মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস এন্ড পীস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে রিটটি করা হয়।