ইসরায়েলের ‘গোপন অভিযানে’ হামাস কমান্ডারসহ নিহত ৭|110600|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১২ নভেম্বর, ২০১৮ ১৯:২৫
ইসরায়েলের ‘গোপন অভিযানে’ হামাস কমান্ডারসহ নিহত ৭
অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েলের ‘গোপন অভিযানে’ হামাস কমান্ডারসহ নিহত ৭

নিহতদের মধ্যে শেখ নুর বারাকাহ ছিলেন খান ইউনিস এলাকার আল-কাসেম ব্রিগেডের চৌকস কমান্ডার। ছবি: আনাদলু

গাজায় ইসরায়েলের বিশেষ বাহিনীর এক গোপন অভিযান এবং অভিযানের সময় বিমান হামলায় প্রতিরোধ সংগঠন হামাসের একজন চৌকস কমান্ডারসহ সাত ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।

ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ জানায়, গাজার দক্ষিণাঞ্চলে খান ইউনিসের পশ্চিম এলাকায় গোপন অভিযান চালায় ইসরায়েলি বিশেষ বাহিনীর একটি দল। অভিযানের একপর্যায়ে হামাস যোদ্ধারা তাদের ধাওয়া করলে বিমান হামলা চালানো হয়।

হামাসের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, কাপুরুষের মতো এই হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। তারা গাজা সীমান্তের দুই মাইল ভেতরে খান ইউনিস এলাকায় ঢুকে আল-কাসেম ব্রিগেডের কমান্ডার শেখ নুর বারাকাহ এবং আরেকজনকে (কমান্ডার) হত্যা করে।

বেসামরিক একটি প্রাইভেটকারে করে ইসরায়েলি বিশেষ বাহিনীর সদস্যরা এই অভিযান চালায়। একপর্যায়ে গাড়িটিকে ধাওয়া করে হামাস যোদ্ধারা। এসময় বিশেষ বাহিনীকে সহায়তা করতে কমপক্ষে ৪০বার হামলা চালায় ইসরায়েলি যুদ্ধবিমানগুলো। এতে আরও পাঁচজন নিহত হন।

গাজার স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানান, নিহত সাতজনের মধ্যে চারজন হচ্ছেন হামাস যোদ্ধা। এদের মধ্যে শেখ নুর বারাকাহ ছিলেন খান ইউনিস এলাকার আল-কাসেম ব্রিগেডের চৌকস কমান্ডার।

এদিকে এক বিবৃতিতে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী জানায়, তাদের বিশেষ বাহিনী গাজায় অভিযান চালালে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এতে এক কর্মকর্তা নিহত হন। আরেকজন সামান্য আহত হন। অভিযান শেষে সেনারা ইসরায়েলে ফিরে যান।

উল্লেখ্য, নিজ ভূমি থেকে উচ্ছেদের ৭০ বছর পূর্তিতে গত মার্চ থেকে প্রত্যাবাসনের মহাযাত্রা নামে বিক্ষোভ কর্মসূচি শুরু করে গাজার ফিলিস্তিনিরা। এতে ইসরায়েলি বাহিনীর হামলায় এখন পর্যন্ত দুই শতাধিক ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।