আচারের স্বাস্থ্য উপকারিতা|110694|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২০ নভেম্বর, ২০১৮ ১২:২৮
আচারের স্বাস্থ্য উপকারিতা
অনলাইন ডেস্ক

আচারের স্বাস্থ্য উপকারিতা

আচারের রয়েছে অনেক স্বাস্থ্যগুণ।

বাঙালির খাবারের তালিকায় আচারের উপস্থিতির কথা আলাদা করে বলার কিছু নেই। আচার স্বাদে যেমন অনন্য, তেমনি রয়েছে অনেক স্বাস্থ্যগুণ। রেহাই দিতে পারে নানা রকম স্বাস্থ্য সমস্যা থেকে। তেমন কিছু উপকারিতা উল্লেখ করেছে ভারতের সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া।

হজমের সমস্যায়: কমবেশি সবারই কোনো না কোনো সময় হজমে সমস্যা হয়। তিনবেলা খাবারের পাতে আমলকির আচার রাখুন। এটি হজমের সমস্যা দূর করবে। আচারে থাকা লবণ শরীরে উপকারী ব্যাকটেরিয়া উৎপাদনে সাহায্য করে। যা অন্য ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াকে নিয়ন্ত্রণ রেখে হজম প্রক্রিয়ার উন্নতি ঘটায়।  

ফাইবারে ভরপুর: সবজি ও ফলের মিশ্রণে তৈরি আচারে উচ্চমাত্রায় ফাইবার থাকে। এছাড়া ভিটামিন ‘এ‌’ এবং ‘সি’ তো থাকছেই।

লিভার ভালো রাখে: বিভিন্ন গোটা জাতীয় ফল অথবা আমলকির আচারে হেপাটোপ্রোটেকটিভ উপাদান থাকে যা লিভার ভালো রাখতে সাহায্য করে।

আলসারের ঝুঁকি কমায়: নিয়মিত আমলকি বা লেবু জাতীয় ফলের আচার খেলে আলসারের ঝুঁকি কমায়। 

গর্ভাবস্থায় উপকারিতা: অন্তঃসত্ত্বা নারীরা আচার খেতে খুব ভালোবাসে। এর পেছনেও একটি বৈজ্ঞানিক কারণ রয়েছে। এটি দেহে অ্যাসিডিটির মাত্রা কমায় এবং সকালের অসুস্থতার মাত্রা কমাতে সাহায্য করে।

হজম শক্তি বাড়ায়: আচারে থাকা ভিনেগার হজমক্রিয়া উন্নতিতে সাহায্য করে। তাই খাদ্যতালিকায় আচার রাখুন এবং এর কার্যকারিতা দেখুন।

স্থুলতা ও ডায়াবেটিস রুখে দেয়: বাড়িতে তৈরি আচার দেহে মাইক্রোবায়োটা পুনরুদ্ধার করে, দ্রুত চর্বি কমায় এবং ইনসুলিন সংবেদনশীলতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য এটি উপযুক্ত খাবার।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: আচারে থাকা উপকারী ব্যাকটেরিয়াতে অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল উপাদান রয়েছে যা ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াকে ধ্বংস করে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।