হৃদয়ের কাছাকাছি ‘কাল হো না হো’|110799|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৮ নভেম্বর, ২০১৮ ১৩:৪৫
হৃদয়ের কাছাকাছি ‘কাল হো না হো’
অনলাইন ডেস্ক

হৃদয়ের কাছাকাছি ‘কাল হো না হো’

‘কাল হো না হো’ সিনেমায় প্রীতি জিনতা। ছবি: ধর্মা প্রডাকশন্স

প্রীতি জিনতা ছিলেন না নির্মাতার প্রথম পছন্দ, সেই ‘কাল হো না হো’র জন্য আজকাল তাকে বেশি স্মরণ করা হয়। নায়িকাও বলেন, সিনেমাটি তার হৃদয়ে বিশেষ জায়গা করে নিয়েছে। জনপ্রিয় বলিউড সিনেমাটি মুক্তির ১৫ বছর পূর্ণ হয়েছে মঙ্গলবার।

‘কাল হো না হো’র ন্যায়না চরিত্রের জন্য প্রথম ভাবা হয়েছিল কারিনা কাপুর খানকে। কিন্তু শাহরুখ খানের সমান পারিশ্রমিক দাবি করায় তার স্থলাষিভিক্ত হন প্রীতি। মজার বিষয় হলো কারিনাকে বলিউডে শক্ত অবস্থান দেওয়া ‘জব উই মেট’ সিনেমার গীত চরিত্রে প্রথমে ভাবা হয়েছিল প্রীতিকে।

বার্তা সংস্থা পিটিআই’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রীতি বলেন, “এ সিনেমা আমার জন্য বিশেষ। কারণ তখন আমি প্রথম প্রেম হারিয়েছিলাম। আমি তাকে ভালোবাসি, সে আমাকে নয়। আমাকে যখন সিনেমাটির প্রস্তাব দেওয়া বিষয়টি গভীরভাবে অনুভব করি। সিনেমাটিতে অভিনয়ের সময় দারুণ কিছু ব্যাপার ঘটে।”

‘কাল হো না হো’য় প্রীতি ছিলেন হতাশ ও অন্তর্মুখী এক নারীর চরিত্রে। বাবার আত্মহত্যার পর জীবনের প্রতি তার বিশ্বাস উঠে যায়। ঘটনাচক্রে এমন একজনের প্রেমে পড়ে যে কিনা বেশিদিন বাঁচবে না।

প্রীতির মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেন জয়া বচ্চন। তাদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক তৈরি হয়। প্রযোজক করণ জোহরের বাবা ইয়াশ জোহরকে স্মরণ করেন প্রীতি, তার সঙ্গেও ছিল ঘনিষ্ঠতা। কিন্তু ‘কাল হো না হো’র পর তিনি মারা যান। এছাড়া দৃশ্যায়নের বিরতিতে শাহরুখকে জটিল সার্জারির জন্য ছুরি-কাঁচির নিচে যেতে হয়।

প্রীতি বলেন, “চলচ্চিত্রটি আমাকে আনন্দে পূর্ণ করেছে, একই সঙ্গে আমাদের হৃদয়ও ভেঙেছে। এটা ছিল রোলার কোস্টারের মতো… একটি কালোত্তীর্ণ সিনেমা। এর অংশ হতে পেরে আমি ভাগ্যবান।”

অন্যদিকে মডার্ন রোমান্টিক ক্লাসিক ‘জব উই মেট’ নিয়ে কোনো দুঃখ নেই প্রীতির। বরং কারিনার সঙ্গে তার নিয়তির সম্পর্ক আছে বলে উল্লেখ করেন। দর্শক যেমন তাকে ‘কাল হো না হো’র জন্য পছন্দ করে, কারিনাকে গীত চরিত্রের জন্য প্রশংসা করে।

‘কাল হো না হো’র ১৫ বছর নিয়ে ইনস্টাগ্রাম পোস্টে করণ জোহর বলেন, “সিনেমাটি সবসময় আমার হৃদয়ের কাছাকাছি থাকবে।”

২০০৩ সালের ২৭ নভেম্বর মুক্তি পাওয়া সিনেমাটি পরিচালনা করেন নিখিল আদভানি। আরও অভিনয় করেন সাইফ আলী খান। একটি গানের দৃশ্যে দেখা যায় কাজল ও রানী মুখার্জিকে। যুক্তরাষ্ট্রে চিত্রায়িত ‘কাল হো না হো’র বাজেট ছিল ২৮ কোটি রুপি। আয় করে ৮৬ কোটি রুপি, পরিণত হয় বছরের শীর্ষ আয়ের সিনেমায়। জিতেছিল দুটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, ৮টি ফিল্মফেয়ার পুরস্কারসহ আরও কিছু স্বীকৃতি।