প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫০৮|110865|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৬:৩৩
প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫০৮
অনলাইন ডেস্ক

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫০৮

সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে বাংলাদেশের বিশাল সংগ্রহে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন মাহমুদউল্লাহ। ছবি: নাজমুল হক বাপ্পি

এক শতক ও তিন অর্ধশতকে ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে বিশাল পুঁজি পেয়েছে বাংলাদেশ। সবকটি উইকেট হারিয়ে তাদের সংগ্রহ ৫০৮ রান।

জবাবে শুরুতেই টালমাটাল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মেহেদী হাসান মিরাজ ও সাকিব আল হাসানের স্পিনে ২৯ রানেই দলটি হাঁরিয়েছে ব্যাটিং লাইনআপের শীর্ষ পাঁচজনকে।

মিরপুর স্টেডিয়ামে ৫ উইকেটে ২৫৯ রানে প্রথম দিনের খেলা শেষ করেছিল বাংলাদেশ। শনিবার বাকি ৫ উইকেটে আর ২৪৯ রান করে তারা। দিনের শুরু থেকেই আস্থার সঙ্গে ব্যাট চালাতে থাকেন আগের দিন অপরাজিত থাকা সাকিব-মাহমুদউল্লাহ জুটি।

দলের রান ৩০০ পার হতেই ১১১ রানের এই জুটিতে ফাটল ধরান কেমার রোচ। আগের দিন ৫৫ রানে অপরাজিত থাকা সাকিব থামেন ৮০ রানে। রোচের বল খেলতে গিয়ে গালিতে শাই হোপের তালুবন্দি হন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক। সাকিবের ১৩৯ বলের ইনিংসটিতে চারের মার ছয়টি।

এতে খুব একটা ধাক্কা খায়নি স্বাগতিক দল। অর্ধশতকের দেখা পাওয়া মাহমুদউল্লাহ সপ্তম উইকেটে লিটন দাসকে নিয়ে গড়ে তুলেন ৯২ রানের কার্যকরী এক জুটি। দলীয় ৩৯৩ রানে এই জুটিকে থামান ব্র্যাথওয়েট। তাকে রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে বোল্ড হন লিটন। ফেরার আগে টেস্টে নিজের চতুর্থ অর্ধশতকের দেখা পান ডানহাতি এই ব্যাটার। ৬২ বলে খেলা তার ৫৪ রানের ইনিংসটিতে চার আটটি, ছক্কা একটি।

উইকেটের একপ্রান্তে অবিচল থাকেন মাহমুদউল্লাহ। অষ্টম উইকেটে সহ-অধিনায়ককে বেশিক্ষণ সঙ্গ দিতে পারেননি মিরাজ। চারশো রানের গণ্ডি পার করানো ২৩ রানের এই জুটিকে থামান জোমেল ওয়ারিক্যান। কট বিহাইন্ড হন ২৬ বলে দুই চারে ১৮ করা মিরাজ।

নবম উইকেটে তাইজুল ইসলামকে নিয়ে ৫৬ রানের গুরুত্বপূর্ণ এক জুটি গড়েন মাহমুদউল্লাহ। এই সময়ে টেস্ট ক্রিকেটে নিজের তৃতীয় সেঞ্চুরির দেখা পান প্রথম দিন ৩১ রানে অপরাজিত থাকা অভিজ্ঞ এই ব্যাটার। দলীয় ৪৭২ রানে এই জুটিতে ছেদ ঘটান ব্র্যাথওয়েট। তার বলে উইকেটরক্ষক শেন ডোরিচের গ্লাভসবন্দি হন ৫৮ বলে তিন চারে ২৬ রান করা তাইজুল।

দশম উইকেটেও ভালো রান পেয়েছে বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহ-নাঈম হাসানের ৩৬ রানের জুটিতে পাঁচশো রানের গণ্ডি পার হয় তারা।

ওয়ারিক্যানের বলে মাহমুদউল্লাহর বিদায়ে থামে স্বাগতিকদের রানের চাকা। উইকেট ছাড়ার আগে ২৪২ বলে ১৩৬ রান করেন ডানহাতি এই ব্যাটার। তার ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসটি রয়েছে ১০টি চারের মার।

উইন্ডিজ বোলারদের মধ্যে দুটি করে উইকেট নিয়েছেন রোচ, ওয়ারিক্যান, দেবেন্দ্র বিশু ও ব্র্যাথওয়েট। একটি করে উইকেট লুইস ও চেইসের।