ইন্দোনেশিয়া উপকূলে রোহিঙ্গা বোঝাই নৌকা|110946|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৭:৩০
ইন্দোনেশিয়া উপকূলে রোহিঙ্গা বোঝাই নৌকা
নিজস্ব প্রতিবেদক

ইন্দোনেশিয়া উপকূলে রোহিঙ্গা বোঝাই নৌকা

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া এক দল রোহিঙ্গা। ছবি: দেশ রূপান্তর

সমুদ্রপথে রোহিঙ্গারা ইন্দোনেশিয়ায় প্রবেশের ঘটনা নতুন নয়। আবারও রোহিঙ্গা বোঝাই কাঠের একটি নৌকা দেশটির সুমাত্রা দ্বীপে ভিড়েছে বলে জানিয়েছে দেশটি।  

রয়টার্সকে পশ্চিম আচেহের দুর্যোগ নিরসন সংস্থা জানায়, নৌকাটিতে ২০ জন রোহিঙ্গা ছিল। তারা এখন কুয়ালা ইদি শহরে আছে। তাদের খাবার ও পানি দেয়া হয়েছে।     

ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ জানায়, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে ওই অঞ্চলে যাচ্ছেন তারা।

স্থানীয় জেলে সম্প্রদায়ের নেতা রেজালি বলেন, ধারণা করছি রোহিঙ্গাদের দলটি মালয়েশিয়ার দিকে যাচ্ছিল। তাদের নৌকা এখনও সচল আছে। তাদের কাছে জ্বালানিও আছে। কিন্তু এখানে কেন ভিড়ল আমরা বুঝতে পারছি না।

তবে তাৎক্ষণিক নিশ্চিত করা যায়নি এসব রোহিঙ্গা মিয়ানমার নাকি বাংলাদেশ থেকে যাচ্ছিল। নভেম্বরে রাখাইনের রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে পালিয়ে যাওয়া একটি নৌকা আটক করে মিয়ানমার। সমুদ্রপথে মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে পাড়ি দেওয়া একাধিক নৌকার একটি ছিল এটি। যদিও অন্য নৌকাগুলো কর্তৃপক্ষকে ফাঁকি দিতে সমর্থ হয়।

২০১২ সালের এক সহিংসতার পর ১০ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিমকে শরণার্থী ক্যাম্পে অবরুদ্ধ করে রেখেছে মিয়ানমার। এছাড়া গত বছর দেশটির সেনাবাহিনী ও স্থানীয় বৌদ্ধ জনগোষ্ঠীর নিপীড়নের মুখে সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে যায়। কক্সবাজারে শরণার্থী ক্যাম্পে আগে আরও ৩ লাখ রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছিল।  

সম্প্রতি মিয়ানমার থেকে এবং বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের সমুদ্রপথ পাড়ি দিয়ে মালয়েশিয়া প্রবেশের ঘটনা বাড়ছে।  

২০১৫ সালের মে মাসে আচেহ প্রদেশের উপকূলে ডুবতে থাকা নৌকা থেকে আটশ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়েছিল। একই মাসে মালয়েশিয়ায় ১৩৯টি গণকবর খুঁড়ে রোহিঙ্গাদের লাশ উদ্ধারের ঘটনা ঘটে।