বিদ্রোহীরা না সরলে কঠোর ব্যবস্থা : কাদের|111777|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
বিদ্রোহীরা না সরলে কঠোর ব্যবস্থা : কাদের
সোনারগাঁ প্রতিনিধি

বিদ্রোহীরা না সরলে কঠোর ব্যবস্থা : কাদের

বিদ্রোহী প্রার্থীরা মঙ্গলবারের মধ্যে নির্বাচন থেকে সরে না দাঁড়ালে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, ‘যেহেতু মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করার এখন আর কোনো সুযোগ নেই, সেহেতু তারা সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে পারবেন। আমরা ১৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেখব কতজন প্রত্যাহার করেন।’

গতকাল সোমবার সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সোনারগাঁ কাঁচপুর দ্বিতীয় কাঁচপুর সেতুর নির্মাণকাজ পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন তদন্ত মোতাবেক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে যেকোনো ধরনের শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে পারবে। এতে আওয়ামী লীগের কোনো দ্বিমত থাকবে না। নির্বাচনে অবাধ, সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে যারা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করবে তারা যে দলেরই হোক, তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে নির্বাচন কমিশনকে।’

কাদের বলেন, ‘ড. কামাল হোসেন সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। আর বলছেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় তারা লড়ছেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা হচ্ছে অসাম্প্রদায়িক চেতনা। আর যে সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে তারা হাত মিলিয়েছেন তারা মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তি, স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি; যারা যুদ্ধাপরাধীদের সমর্থন করে। বিএনপি-জামায়াতের বন্ধুত্ব পুরোনো।’ 

তিনি বলেন, ‘নতুন করে ছদ্মবেশী গণতন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধা ডক্টর কামাল হোসেন, কাদের সিদ্দিকীসহ আরো কয়েকজন আজকে সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে হাত মিলিয়ে ধানের শীষ মার্কায় ভোট করছেন। এটা স্ববিরোধী বক্তব্য ও হাস্যকর। সবচেয়ে দুঃখজনক ও দুর্ভাগ্যজনক বিষয় হচ্ছে ডক্টর কামাল হোসেন যে সুরে কথা বলছেন, যা তার মুখে মানায় না।’ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এজন্য আমাদের তেমন কোনো মাথাব্যথা নেই। কারণ সারা দেশে নৌকার গণজোয়ার বইছে। সরকার যে উন্নয়ন করেছে তা দেখে মানুষ সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে শেখ হাসিনার নৌকায় ভোট দেওয়ার জন্য।’  সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এর আগে দ্বিতীয় কাঁচপুর সেতুর নির্মাণকাজ সম্পর্কে সংশ্লিষ্টদের কাছ থেকে খোঁজখবর নেন। তিনি জানান, সেতুটির নির্মাণকাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। মহাজোট আবার ক্ষমতায় এলে আগামী বছরের শুরুতে জানুয়ারি মাসেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নবনির্মিত এই সেতুটি উদ্বোধন করবেন। সেতুমন্ত্রীর পরিদর্শনকালে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক, সড়ক ও জনপথ বিভাগের ঢাকা জোনের প্রধান প্রকৌশলী আবদুস সবুর, নারায়ণগঞ্জ সওজের প্রধান প্রকৌশলী আলীউল হোসেনসহ সড়ক ও সেতু বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।