সন্ত্রাসবাদে রাষ্ট্রীয় মদদ সহ্য করা হবে না|112390|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
ইসলামাবাদকে ওয়াশিংটনের সতর্কতা
সন্ত্রাসবাদে রাষ্ট্রীয় মদদ সহ্য করা হবে না
রূপান্তর ডেস্ক

সন্ত্রাসবাদে রাষ্ট্রীয় মদদ সহ্য করা হবে না

সন্ত্রাসবাদে রাষ্ট্রীয় মদদ সহ্য করবে না যুক্তরাষ্ট্র। গত বৃহস্পতিবার পেন্টাগন পাকিস্তানসহ তার সব আঞ্চলিক অংশীদারদের এমন বার্তা দিয়ে সতর্ক করে দিয়েছে বলে জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

চলতি বছরের জুন থেকে নভেম্বর পর্যন্ত আফগান রিপোর্টের বরাত দিয়ে পেন্টাগন জানায়, পাকিস্তানে কিছু জঙ্গি গোষ্ঠীর কারণে পার্শ্ববর্তী দেশ আফগানিস্তানে অস্থিরতা বাড়ছে। তালেবান এবং হাক্কানি নেটওয়ার্কের মতো গোষ্ঠী পাকিস্তানে স্বাধীনভাবে ঘুরছে। পেন্টাগন বলেছে, ‘যুক্তরাষ্ট্র তার সব আঞ্চলিক অংশীদার এবং মিত্রদের জানাচ্ছে, সন্ত্রাসবাদে রাষ্ট্রীয় সহযোগিতা সহ্য করা হবে না। আফগানিস্তান এবং পাকিস্তানের মধ্যকার সীমান্ত সমস্যার সমাধান হওয়া জরুরি। তালেবানরা যেন অভ্যন্তরীণ সেনা সংঘর্ষের ফলে তাদের কাক্সিক্ষত লক্ষ্যে পৌঁছাতে না পারে সেদিকে নজর রাখতে হবে।’ রিপোর্ট অনুসারে, আফগানিস্তানের কাবুলে এবং পূর্বাঞ্চলে তালেবানদের সঙ্গে দেশটির সরকারের শান্তি প্রক্রিয়া আলোচনায় হাক্কানি নেটওয়ার্ক ব্যাপক প্রভাব বিস্তার করছে। তালেবানদের ডেপুটি হিসেবে সিরাজউদ্দিন হাক্কানি দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে হাক্কানি নেটওয়ার্কের প্রভাব বাড়ছে। এরই মধ্যে জঙ্গি গোষ্ঠিটি পাকটিয়া এবং খোস্ত প্রদেশে শক্তিশালী ঘাঁটি গড়ে তুলেছে।  টাইমস অব ইন্ডিয়ার মতে, আফগান-পাকিস্তান সীমান্তে তালেবান, আল-কায়েদা (একিউ), দ্য হাক্কানি নেটওয়ার্ক (এইচকিউএন), লস্কর-ই-তৈয়বা (এলইটি), তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি), আইএসআইএস-কে, ইস্ট তুর্কমেনিস্তান ইসলামিক মুভমেন্ট (ইটিআইএম) এবং ইসলামিক মুভমেন্ট অব উজবেকিস্তান (আইএমইউ) বেশ সক্রিয়। ওয়াশিংটন অনেকদিন ধরেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে মদদ দেওয়ার অভিযোগ করে আসছে। এ নিয়ে পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বাদানুবাদও হয়েছে। ইসলামাবাদ বলে আসছে, পাকিস্তানে সন্ত্রাসীদের নেটওয়ার্ক থাকার সুস্পষ্ট প্রমাণ ওয়াশিংটন দিতে পারলে এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।