বিবিসির খবরের ‘নিরপেক্ষতা’ যাচাইয়ে রাশিয়া|112546|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
বিবিসির খবরের ‘নিরপেক্ষতা’ যাচাইয়ে রাশিয়া
রূপান্তর ডেস্ক

বিবিসির খবরের ‘নিরপেক্ষতা’ যাচাইয়ে রাশিয়া

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি ওয়ার্ল্ড নিউজে রাশিয়া সংক্রান্ত খবরের নিরপেক্ষতা যাচাই করবে মস্কোর গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রক সংস্থা। সংস্থাটির কর্র্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।

রাশিয়া সরকারের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেন, ‘রাশিয়া বিষয়ক বিভিন্ন ঘটনায় বিবিসির খবর প্রকাশ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। তারা পূর্বপরিকল্পিত ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে এসব খবর পরিবেশন করে। দীর্ঘদিন ধরেই তারা এমনটা করছে।’ যদিও রাশিয়ার আইন মেনেই সকল খবর প্রচার করা হয় বলে দাবি বিবিসির।

বিশেষ করে সিরিয়াতে রাশিয়ান সরকারের ভূমিকা নিয়ে যে খবর বিবিসিতে প্রচারিত হয় সেগুলো নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন দিমিত্রি পেসকভ। সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের বাহিনীর প্রতি রাশিয়ার সমর্থন রয়েছে। এ নিয়ে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে বেশ কয়েকবার বিতর্কের সৃষ্টি হয়। ফেইসবুকে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া যাখারোভা বলেছেন, অনেক আগেই বিবিসির সংবাদ পর্যবেক্ষণ করার প্রয়োজন ছিল।

গত বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রক সংস্থা অফিস অফ কমিউনিকেশনস (অফকম) জানায়, রাশিয়ার আন্তর্জাতিক টেলিভিশন নেটওয়ার্ক আরটি (রাশিয়ান টুডে) তাদের সাতটি অনুষ্ঠানে নিরপেক্ষতা ভঙ্গ করেছে। চলতি বছরের ১৭ মার্চ থেকে ২৬ এপ্রিলের মধ্যে এমনটা ঘটেছে বলে মনে করছে সংস্থাটি।

অফকমের বক্তব্যের জবাবে রাশিয়া পাল্টা তাদের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। মূলত ইংল্যান্ডের সালিসবুরিতে একজন সাবেক রাশিয়ান গুপ্তচর সেরগেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ের ওপর নার্ভ গ্যাস হামলার ঘটনায় আরটির কভারেজ নিয়ে ঘটনার সূত্রপাত। তখন আরটির কভারেজ নিয়ে সমালোচনা করেছিল অফকম।

তখন যুক্তরাজ্য ও পশ্চিমা জোট ওই হামলার জন্য রাশিয়াকে দায়ী করে। ওই হামলা নিয়ে নিয়ে দীর্ঘ তিক্ত পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল যুক্তরাজ্য ও রাশিয়ার সম্পর্কে। স্ক্রিপাল বিষয়ক সংবাদ যখন প্রকাশিত হচ্ছিল তখন রাশিয়ার আরটি নিরপেক্ষ ছিলও না বলে মনে করে অফকম। তবে এখন পর্যন্ত রাশিয়ার এই অভিযোগ নিয়ে বিবিসি আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানায়নি।