কারাগারে মানুষ বিক্রি!|112930|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
কারাগারে মানুষ বিক্রি!
রূপান্তর ডেস্ক
রূপান্তর ডেস্ক

কারাগারে মানুষ বিক্রি!

একবিংশ শতাব্দীর এই উৎকর্ষতার সময়ে মানুষ বিক্রির খবরে আঁতকে উঠতে হয়। সম্প্রতি আলজাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, লিবিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের বন্দর শহর খোমসের সুক আল খামিস কারাগারে দিনেদুপুরে মানুষ বিক্রি করে দেওয়া হয়।

লিবিয়ার অবৈধ অভিবাসী নিয়ন্ত্রণ দপ্তরের (ডিসিআইএম) অধীনে ওই কারাগারটি চলে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের ফান্ডে লিবিয়ার কোস্টগার্ডের হাতে ভূমধ্যসাগরে যেসব অবৈধ অভিবাসীদের গ্রেপ্তার করা হয়, তাদের এই কারাগারে রাখা হয়। ২০১৭ সালে ১০ হাজারের বেশি লিবীয় দেশে ফিরে এসেছে। কিন্তু এখন নিজ দেশে ফিরে এলেও লিবীয়দের অবৈধভাবে প্রবেশ করতে হচ্ছে। ধরা পড়লেই তাদের নিয়ে যাওয়া হচ্ছে কুখ্যাত কারাগারে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, কারাগারটিতে খাবার, ওষুধের সংকটের মাঝেও বন্দিরা সারাক্ষণ ভয়ে থাকেন কখন তাদের বিক্রি করে দেওয়া হয়। কারাগারটির রক্ষীরা বিভিন্ন চোরাচালান গ্রুপের কাছে শ্রমিক হিসেবে বন্দি শরণার্থী এবং অভিবাসীদের বিক্রি করে দেয়। আলজাজিরা সুল আল খামিসের বেশ কয়েকজন সাবেক বন্দির সঙ্গে যোগাযোগ করে। তারা জানায়, চলতি মাসের ৭ তারিখ কারাগার থেকে তিনজন বন্দিকে বিক্রি করা হয়েছে। একজন ইরিত্রিয়ান বন্দির উদ্ধৃতি দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘প্রথমে কিছু মানুষ আসে এবং আমরা কেউ বের হতে চাই কি না তা জিজ্ঞাসা করে। কিন্তু আমরা বলি যে আমরা বের হতে চাই না। তখন আরো কিছু মানুষ আসে যারা পুলিশকে বলে কিছু মানুষ দিতে কাজের জন্য। এরপরই তারা কয়েকজনকে বিক্রি করে দেয়।’