সিনেপ্লেক্সে নতুন সংস্করণে স্পাইডার-ম্যান|113259|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৬:৫৭
সিনেপ্লেক্সে নতুন সংস্করণে স্পাইডার-ম্যান
অনলাইন ডেস্ক

সিনেপ্লেক্সে নতুন সংস্করণে স্পাইডার-ম্যান

‘স্পাইডার-ম্যান: ইনটু দ্য স্পাইডার-ভার্স’ সিনেমার একটি দৃশ্য। ছবি: ফেসবুক থেকে

মার্ভেল কমিকসের চরিত্র স্পাইডার-ম্যানকে নিয়ে অনেকগুলো সিনেমা নির্মিত হয়েছে। যার মধ্যে কয়েকটি বাংলাদেশের দর্শকরা বড়পর্দায় দেখেছেন। এবার মুক্তি পাচ্ছে অ্যানিমেশন সংস্করণ।

স্টার সিনেপ্লেক্সে শুক্রবার মুক্তি পাবে ‘স্পাইডার-ম্যান: ইনটু দ্য স্পাইডার-ভার্স’। ব্রায়ান মাইকেল বেন্ডিস ও সারা পিচেলির গল্প ‘মাইলস মোরালেস’ অবলম্বনে চিত্রনাট্য তৈরি করেছেন ফিল লর্ড ও রডনি রথম্যান। পরিচালনা করেছেন বব পার্সিচেটি, পিটার রামসে ও রডনি রথম্যান।

কলাম্বিয়া পিকচার্সের প্রযোজনায় ছবিটির পরিবেশনায় রয়েছে সনি পিকচার্স। বিভিন্ন চরিত্রে রয়েছেন শেমিক মুর, হেইলি স্টেইনফিল্ড, মাহেরশালা আলী, জেক জনসন, লিভ শেরেবের, ব্রায়ান টিরি হেনরি, লুনা লরেন ভেলেজ ও লিলি টমলিন।

চলতি মাসের প্রথম দিন লস অ্যাঞ্জেলেসে ‘স্পাইডার-ম্যান: ইনটু দ্য স্পাইডার-ভার্স’-এর ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হয়। তবে মুক্তির আগেই দর্শক-সমালোচকদের মন জয় করে নিয়েছে ছবিটি। অ্যানিমেশনে অভিনবত্ব, ভয়েস-অ্যাকটিং, চরিত্র, গল্প এবং রসায়ন বিশেষ প্রশংসা অর্জন করে। ইতিমধ্যে ৭৬তম গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডসে সেরা অ্যানিমেশন ছবি হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছে।

১৪ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিকভাবে মুক্তি পাওয়ার পর দর্শকদের সাড়া বেড়ে গেছে কয়েক গুন। ৯ কোটি ডলার বাজেটের ছবিটি ইতিমধ্যে বক্স অফিসে আয় করেছে প্রায় ১৩ কোটি ডলার।

২০১৪ সালে ‘স্পাইডার-ম্যান: ইনটু দ্য স্পাইডার-ভার্স’-এর পরিকল্পনা শুরু হয়। আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা আসে ২০১৫ সালে।

নির্মাতারা চলচ্চিত্রটির নিজস্ব স্টাইল চেয়েছিলেন, যা মাইলস মোরালেসের সহ-সৃষ্টিকর্তা সারা পিচেলির কাজ দ্বারা অনুপ্রাণিত। প্রথাগত হাত-আঁকা কমিক বই কৌশলের সঙ্গে চিত্রকর্মগুলোর অভ্যন্তরীণ কম্পিউটার অ্যানিমেশনকে মিশ্রিত করে।

ছবির অ্যানিমেশনের জন্য ১৪০ জন অ্যানিমেটর কাজ করেন, যা এ যাবৎকালে সনি পিকচার্সের অ্যানিমেশন ছবিতে ব্যবহৃত সবচেয়ে বড় টিম।