না থেকেও ভোটের মাঠে সৈয়দ আশরাফ|113990|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
না থেকেও ভোটের মাঠে সৈয়দ আশরাফ
নিজস্ব প্রতিবেদক

না থেকেও ভোটের মাঠে সৈয়দ আশরাফ

কিশোরগঞ্জ-১ আসনের টানা চার বারের সংসদ সদস্য সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। শারীরিক অসুস্থতার কারণে এবারই প্রথম ভোটের মাঠে নামতে পারেননি তিনি। তবু যেন আক্ষেপ ছিল না স্থানীয়দের। তার অনুপস্থিতিতেই আসনটিতে চলেছে নৌকার প্রচার। তার জন্য নির্বাচনী জনসভাসহ মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে ভোট চেয়েছেন পরিবারের সদস্য, আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীসহ অনেকেই। এ ছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে শুরু করে ব্যানার-পোস্টার, লিফলেট, হ্যান্ডবিল বিলিসহ সব রকম প্রচারই হয়েছে। আশা করা হচ্ছে, এবারও আসনটি ধরে রাখতে পারবেন তিনি।

সৈয়দ আশরাফ বর্তমানে ব্যাংককের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার অনুপস্থিতিতে ভাই সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম, সাফোয়েতুল ইসলাম, বোন জাকিয়া নূর লিপি ও রূপা নূর কাজ করেছেন। আরেক ভাই (চাচাতো) আসফাকুল ইসলাম টিটু ও মশিউর রহমান হুমায়ুন কাজ করেছেন। কিশোরগঞ্জ-১ আসনের ভোটার ও আশরাফ পরিবারের ঘনিষ্ঠ আনোয়ারুল কবির গতকাল শনিবার দেশ রূপান্তরকে বলেন, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম না থাকলেও আসনটিতে প্রচারে ঘাটতি ছিল না। স্থানীয় জনগণ সবাই নৌকার প্রার্থীর জয়ের জন্য ঐক্যবদ্ধ। তিনি বলেন, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ভোটের মাঠে নেই। কিন্তু বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না। ৩০ ডিসেম্বরের ভোটে জিতবে নৌকার প্রার্থী।

সৈয়দ আশরাফের দুই বোন মনে করেন, তাদের ভাই ভোটের মাঠে না থাকলেও কোনো বিরূপ প্রভাব নেই। তাদের দাবি, অন্যান্য বারের চেয়ে বেশি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হবেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম টানা দুই বার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে দলের সভাপতিম-লীর সদস্য। জনপ্রশাসন মন্ত্রী হিসেবে এখনো দায়িত্বে রয়েছেন তিনি। এই নিয়ে তিন দফায় মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন সৈয়দ আশরাফ। দায়িত্ব পালনে সততা ও নিষ্ঠা জনপ্রিয়তার শীর্ষে নিয়ে গেছে এ নেতাকে। দলের দায়িত্ব পালনকালেও তিনি সর্বোচ্চ জনপ্রিয় সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন।