ভোটকেন্দ্র গুলোতে উপস্থিতি অবিশ্বাস্য|114226|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
সংবাদ সম্মেলনে কাদের
ভোটকেন্দ্র গুলোতে উপস্থিতি অবিশ্বাস্য
ফেনী প্রতিনিধি

ভোটকেন্দ্র গুলোতে উপস্থিতি অবিশ্বাস্য

দেশের মানুষ সাম্প্রদায়িক রাজনীতি প্রত্যাখ্যান করেছে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ভোটকেন্দ্রগুলোতে ভোটারের অবিশ্বাস্য উপস্থিতি দেখা গেছে। গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় ফেনীর মহিপালে প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজীর ব্যক্তিগত কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। ওবায়দুল বলেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সুনিশ্চিত বিজয়ের পথে এগিয়ে যাচ্ছে মহাজোট। ভোটের আগে মহাজোটের পক্ষে যে গণজোয়ার তৈরি হয়েছিল, এ ভোটে সে জোয়ারের প্রতিফলন হয়েছে। ভোটকেন্দ্রগুলোতে অচিন্তনীয়, অবিশ্বাস্য উপস্থিতি ছিল ভোটারদের।  এর মধ্যে নারী ও তরুণদের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়।’
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ২২০ আসনে অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগ প্রসঙ্গে কাদের বলেন, ‘এ ধরনের বক্তব্য অনাকাক্সিক্ষত ও অনভিপ্রেত। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বর্জন তাদের দলীয় সিদ্ধান্ত নয়। ৫১ জন কেন দলীয় সিদ্ধান্ত না মেনে বর্জন করল, তা আমার জানা নেই।’

নির্বাচনে সহিংসতায় সারা দেশে প্রাণহানির বিষয়ে কাদের বলেন, ‘বিএনপি পরাজয় নিশ্চিত দেখে এসব সহিংসতার পথ বেছে নিয়েছে। তাদের নেতাদের ফাঁস হওয়া ফোনালাপ তার প্রমাণ। এ ব্যাপারে ফলাফল ঘোষণার পর কেন্দ্র থেকে আনুষ্ঠানিক ব্রিফিং আমাদের দল থেকে দেওয়া হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ফেনী-২ আসনের সাংসদ ও আওয়ামী লীগ প্রার্থী নিজাম উদ্দিন হাজারী, ফেনী ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম, ফেনী পৌরসভার প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শেখ আবদুল্লাহসহ দলীয় নেতাকর্মীরা।

এর আগে গতকাল সকালে নিজ নির্বাচনী কেন্দ্র নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার উদয়ন প্রি-ক্যাডেট একাডেমিতে ভোট দিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ওবায়দুল। সে সময় তিনি বলেছিলেন, জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী দেশে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হবে। তীব্র শীত উপেক্ষা করে ভোটাররা কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিচ্ছেন। দু-একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া প্রতিটি কেন্দ্রে উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন হচ্ছে।  

কাদের আরো বলেছিলেন, তার নির্বাচনী এলাকায় জনগণ যে রায় দেবেন, তা তিনি মেনে নেবেন।