পাবনায় জিতে যাওয়া প্রার্থীর সমর্থকরা কোপালো যুবলীগ নেতাকে|114305|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২১:২৩
পাবনায় জিতে যাওয়া প্রার্থীর সমর্থকরা কোপালো যুবলীগ নেতাকে
পাবনা প্রতিনিধি

পাবনায় জিতে যাওয়া প্রার্থীর সমর্থকরা কোপালো যুবলীগ নেতাকে

পাবনার সুজানগরে দলীয় কোন্দল ও আধিপত্যের জোর ধরে জিতে যাওয়া প্রার্থীর সমর্থকরা যুবলীগ নেতাসহ তিনজনকে কুপিয়ে আহত করেছে। 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত ফিরোজ কবিরের সমর্থকরা কুপিয়েছে বর্তমান সাংসদ আজিজুল হক আরজুর সমর্থকদের। 

পুলিশ জানিয়েছে রোববার রাত ১০টার দিকে সুজানগর থানার নাজিরগঞ্জে এ ঘটনা ঘটে। 

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ফিরোজ কবির জিতে গেলে তার সমর্থক হারুন মেম্বর (৪৫) সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের নিয়ে একই গ্রামের কামাল মালিথার (৪০) বাড়িতে হামলা চালায়। এতে কামাল মালিথার ভাই জামাল মালিথাসহ তিনজন আহত হয়। জামাল মালিথাকে (৩০) আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

কামাল মালিথা নাজিরগঞ্জ ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নাজিরগঞ্জ গ্রামের এক বাসিন্দা জানিয়েছেন, সুজানগর উপজেলার নাজিরগঞ্জ ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামাল মালিথার সঙ্গে একই এলাকার হারুন মেম্বর এর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় আধিপত্য নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। 

হারুন মেম্বর আওয়ামীলীগের সদ্য বিজয়ী সংসদ সদস্য  ফিরোজ কবিরের সমর্থক এবং কামাল মালিথা বর্তমান সংসদ সদস্য  আজিজুল হক আরজুর সমর্থক বলে জানা যায়। 

রবিবার নির্বাচনে ফিরোজ কবির জয়লাভ করার পরপরই হারুন মেম্বর অস্ত্র-শস্ত্রসহ কামাল মালিথার বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা কামাল মালিথার ছোট ভাই জামাল মালিথাকে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে। 

সুজানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শরিফুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় অস্ত্র আইনে ৮ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। রাতেই অভিযান চালিয়ে অস্ত্র ও গুলিসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি দুইজন পলাতক।