টেস্টে সেরার তালিকায় মুশফিক-মিরাজরা|114318|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২২:৩৮
টেস্টে সেরার তালিকায় মুশফিক-মিরাজরা
অনলাইন ডেস্ক

টেস্টে সেরার তালিকায় মুশফিক-মিরাজরা

২০১৮ সালে টেস্ট ক্রিকেটে ব্যাট হাতে সবচেয়ে আলো কেড়েছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বল হাতে উজ্জ্বল দক্ষিণ আফ্রিকার কাগিসো রাবাদা। তালিকাগুলোর সেরা দশে রয়েছেন বাংলাদেশি তারকারাও।

এ বছর সাদা পোশাকে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় অষ্টম স্থানে রয়েছেন মুমিনুল হক। সেরা ইনিংসের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে মুশফিকুর রহিমের নাম। সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহকের তালিকায় অষ্টম স্থানে তাইজুল ইসলাম। বছরের সেরা বোলিং ফিগারে চতুর্থ স্থানে আছেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

সর্বোচ্চ রান

২০১৮ সাল পুরোটাই নিজের করে নিয়েছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ওয়ানডেতে সর্বাধিক রান করেছেন শেষ হতে চলে বছরে। টেস্টেও নিজেকে সবার ধরা ছোঁয়ার বাইরে রেখে শীর্ষে থেকে বছর শেষ করেছেন। ১৩ টেস্টে ২৪ ইনিংসে কোহলির রান ১৩২২। ৫৫.০৮ গড়ে রান করেছেন ভারত অধিনায়ক। ৫টি করে সেঞ্চুরি ও অর্ধশতক হাঁকান এই ব্যাটার। সর্বোচ্চ ইনিংসটি ১৫৩। এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা কুশল মেন্ডিসের রান ১২ টেস্টে ১০২৩। মুমিনুল হক ৮ টেস্ট খেলে ৬৭৩ রান করে আছেন তালিকার অষ্টম স্থানে। হাঁকিয়েছেন ৪টি সেঞ্চুরি।

সর্বোচ্চ ইনিংস

এ বছর টেস্টে সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি টম ল্যাথামের। এ মাসেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়েলিংটনে অপরাজিত ২৬৪ রানের ইনিংস খেলেন ল্যাথাম। গড়েন শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ব্যাট করে সর্বোচ্চ রানের নতুন বিশ্ব রেকর্ড। মোট দুটি ডাবল সেঞ্চুরি হয়েছে এ বছর। অন্যটি মুশফিকুর রহিমের। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অপরাজিত ২১৯ রান করেন মুশফিক। যা এ বছর টেস্টে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ইনিংস।

সর্বোচ্চ উইকেট

এ বছর টেস্টে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় শীর্ষে কাগিসো রাবাদা। ১০ টেস্টে ৫২ উইকেট নিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার। ইনিংসে তার সেরা বোলিং ফিগার ৬/৫৪। ম্যাচে ১১/১৫০। ৫ উইকেট নিয়েছেন দুই বার, ১০ উইকেট নিয়েছেন একবার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫০ উইকেট দিলরুয়ান পেরেরার। ৪৩ উইকেট নিয়ে তালিকায় অষ্টম স্থানে আছেন বাংলাদেশের তাইজুল ইসলাম। ৭ টেস্ট খেলে চার বার ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়েছেন। ১ বার নিয়েছেন ১০ উইকেট।

সেরা বোলিং ফিগার

জুনে কলম্বো টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এক ইনিংসেই ৯ উইকেট শিকার করেন কেশভ মহারাজ। ম্যাচটি অবশ্য ১৯৯ রানে জিতেছিল স্বাগতিকরা। ম্যাচের প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কাকে ৩৩৮ রানে ‍গুটিয়ে দিতে ৯ উইকেট নেন মহারাজ। দ্বিতীয় ইনিংসেও ৩ উইকেট নিয়েছিলেন। ম্যাচে নেন ১১ উইকেট। বছরে দ্বিতীয় সেরা বোলিং ফিগারটি ইয়াসির শাহর। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুবাইয়ে ৪১ রান খরচ করে ইনিংসে ৮ উইকেট নেন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ৬২ রান ব্যয় করে ৮ উইকেট নেন। পরের স্থানটি মেহেদী হাসান মিরাজের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে প্রথম ইনিংসে ১৬ ওভার বল করে ৫৮ রানে শিকার করেন ৭ উইকেট।