আমি দুঃখিত, অভিনন্দন জানাতে পারছি না: অমিত|114338|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২৩:৪৬
আমি দুঃখিত, অভিনন্দন জানাতে পারছি না: অমিত
যশোর প্রতিনিধি

আমি দুঃখিত, অভিনন্দন জানাতে পারছি না: অমিত

যশোরে নিজ বাড়িতে সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহসাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত। ছবি: দেশ রূপান্তর

যশোর-৩ (সদর) আসনের বিজয়ীপ্রার্থী কাজী নাবিল আহমেদের জয়ে ভোটারদের ভূমিকা নেই দাবি করে বিএনপির প্রার্থী অনিন্দ্য ইসলাম অমিত বলেছেন, ‘আমি দুঃখিত, বিজয়ী কাজী নাবিল আহমেদকে অভিনন্দন জানাতে পারছি না। জনগণ ভোট দেওয়ার সুযোগ পেলে এবং সেই নির্বাচনে তিনি জয়ী হলে অভিনন্দন জানাতাম।’

সোমবার শহরের ঘোপ এলাকায় নিজ বাড়িতে সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির এই সহসাংগঠনিক সম্পাদক বলেন, সারাদেশের মানুষ দেখেছে দলীয় সরকারের অধীনে, বিশেষত আওয়ামী লীগের অধীনে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হতে পারে না। অমিত বলেন, ‘সারাদিনের কর্মকাণ্ড শেষে মানুষ আয়নার সামনে দাঁড়ায়। নিজের চেহারা দেখে। এখন কাজী নাবিল কীভাবে আয়নার সামনে দাঁড়াবেন?’

রোববার অনুষ্ঠিত নির্বাচনের চিত্র তুলে ধরতে গিয়ে তিনি বলেন, শুধু সেনানিবাসের কেন্দ্রগুলো ছিল ব্যতিক্রম। এছাড়া আর কোথাও ভোটাররা ভোট দিতে পারেননি। অথচ মানুষ ভোট দিতে উন্মুখ হয়ে ছিল। কোনো কোনো কেন্দ্রে নারী-পুরুষের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। অথচ তাদেরকে ভোট দিতে বাধা দিয়েছে সরকারি দলের নেতাকর্মীরা। নির্বাচনে তিনি পুলিশের ভূমিকারও সমালোচনা করেন। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে অমিত বলেন, সামনের রাজনীতির গতিপথ কী হবে, তা নির্ধারণ করবেন ঐক্যফ্রন্ট নেতারা। ইতিমধ্যে কেন্দ্র থেকে প্রার্থীদের কিছু নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন যশোর-৩ আসনে ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থীর প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট জেলা বিএনপির সহসভাপতি নজরুল ইসলাম, আব্দুস সবুর মণ্ডল, যুগ্মসম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, নগর শাখার সাধারণ সম্পাদক মুনির আহমেদ সিদ্দিকী বাচ্চু প্রমুখ।