শেষ বসন্তের নাট্যরঙ্গ|132376|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৮ মার্চ, ২০১৯ ১৪:৩৬
শেষ বসন্তের নাট্যরঙ্গ
নিজস্ব প্রতিবেদক

শেষ বসন্তের নাট্যরঙ্গ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটমণ্ডলে ২৯ ও ৩০ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে ‘শেষ বসন্তের নাট্যরঙ্গ’ শিরোনামের উৎসব। এতে মঞ্চায়িত হবে ‘হ্যাপি ডেজ’। প্রতিদিন বিকেল সাড়ে ৫টা ও সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় প্রদর্শনী হবে।

স্যামুয়েল বেকেটের লেখা ‘হ্যাপি ডেজ’ বাংলা অনুবাদ করেছেন কবীর চৌধুরী ও শাহীন কবীর। মঞ্চে নির্দেশনা দিয়েছেন শুভাশিস সিনহা। প্রযোজনা করেছে ফরাসি দূতাবাস। একক অভিনয় করছেন জ্যোতি সিনহা। মঞ্চ নির্মাণ করেছেন শাহনাজ জাহান।

সহযোগিতায় আসফিকুর রহমান, হাসান আলী। আলোক প্রক্ষেপণে আসলাম অরণ্য। সংগীত প্রক্ষেপণে হুমায়ূন আজম রেওয়াজ। মঞ্চ ব্যবস্থাপনায় আছেন পারভেজ সরকার।

নাট্যনির্দেশক শুভাশিস সিনহা বলেন, “বসন্ত প্রায় শেষের দিকে, তাই শেষ বসন্তের উৎসব। এটা ‘হ্যাপি ডেজ’ নিয়ে এক নাটকের উৎসব। চারটি প্রদর্শনীতে সবার আমন্ত্রণ। আশা করছি উৎসব জমবে। নাটকের পাশাপাশি টুকটাক কিছু আয়োজনও থাকবে, সব এখনই বলা যাবে না।”

অ্যাবসার্ড নাটকের জন্য বিখ্যাত, ‘ওয়েটিং ফর গডো’-খ্যাত নোবেলজয়ী নাট্যকার স্যামুয়েল বেকেটের লেখা আলোচিত নাটক ‘হ্যাপি ডেজ’। এতে উইনি নামের এক নারীর নিঃসঙ্গ কিন্তু স্বপ্নময় জীবন উঠে এসেছে। যেখানে সব ছেলেখেলার মতো ক্রিয়াকলাপের মধ্য দিয়ে মানুষের এক অভিনব মানসপটকে আঁকা হয়েছে। পুরো নাটকে উইনি তার স্বামী উইলির সঙ্গে অনর্গল কথা বলে যায়, প্রলাপের মতো। নস্টালজিয়া, অভিযোগ, আকাঙ্ক্ষা কিন্তু সবকিছু ছাপিয়ে তার শরীর-মনের তীব্র প্রেমাকুতি।

মূল টেক্সটে দুই-একটি সংলাপের মধ্য দিয়ে অথর্ব, অক্ষম পুরুষ চরিত্র উইলি উপস্থিত থাকলেও এ প্রযোজনায় তাকে অনুপস্থিত রাখা হয়েছে। কিন্তু স্ত্রী উইনির ঘণ্টাব্যাপী কথা-ক্রিয়ার মধ্যে সে বর্তমান থাকে। সে জীবিত নাকি মৃত, সে প্রশ্নের মীমাংসাও হয়তো হয় না। কিন্তু উইনি তাকে নিয়ে জীবনের এক আনন্দময় দিনের স্বপ্ন দেখে চলে, তাকে নিজের মতো করে সাজিয়ে চলে, যা কোনো দিনই তার জীবনে আসে না।

টিকিটের দাম রাখা হয়েছে ২০০, ৩০০ ও ৫০০ টাকা। শিক্ষার্থীদের জন্য রাখা হয়েছে ১০০ টাকা। অগ্রিম টিকিটের জন্য ০১৭১৭-৩৮৬৬৪৬ নম্বরে যোগাযোগ করতে হবে।