ট্রাকচাপায় প্রাণ গেল ৩ বন্ধুর|148431|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৩ জুন, ২০১৯ ০০:০০
ট্রাকচাপায় প্রাণ গেল ৩ বন্ধুর
বিভিন্ন স্থানে নিহত আরও ৫
প্রতিদিন ডেস্ক

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেল ৩ বন্ধুর

কোনো কিছুই থামাতে পারছে না চালকদের বেপরোয়া আচরণ। প্রতিদিন সড়কে ঝরছে প্রাণ। গত মঙ্গলবারও নওগাঁর মহাদেবপুরে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী তিন বন্ধু নিহত হয়েছেন। রাত ৯টার দিকে মহাদেবপুর-নজিপুর রোডে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন উপজেলার বিজয়পুর গ্রামের আবদুস সামাদের ছেলে সাগর হোসেন (১৯), দুলাল হোসেনের ছেলে শরীফ উদ্দিন (১৯) ও গোলাম রসুলের ছেলে মোহাম্মদ রুহানি (১৮)।

এ ছাড়া গতকাল বুধবার রাজধানীর মোহাম্মদপুরে দুই বাসের মাঝে চাপা পড়ে এক সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক নিহত হয়েছেন। এদিন সকালে পাবনায় পথচারী এক নারীকে বাঁচাতে গিয়ে মোটরসাইকেল আরোহী চাচা-ভাতিজা নিহতের খবর পাওয়া গেছে। দুপুরে কুষ্টিয়ার খোকসায় বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে এক ব্যক্তি এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় বাসচাপায় আরেক যুবক নিহত হন। বিস্তারিত নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিনিধি ও সংবাদদাতাদের পাঠানো খবরÑ

নওগাঁর মহাদেবপুর থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন জানান, মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে তিন বন্ধু মোটরসাইকেল নিয়ে মহাদেবপুর থেকে নিজ বাড়ি বিজয়পুর ফিরছিলেন। মহিষবাথান মোড়ে মহাদেবপুরগামী উল্টো দিক থেকে আসা একটি ট্রাক তাদের মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে রুহানি ও শরীফ মারা যান। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে সাগরও মারা যান। এ ঘটনায় মহাদেবপুর থানায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা হয়েছে।

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল ভোর সাড়ে ৪টার দিকে মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধের তিন রাস্তার মোড়ে ব্রাদার্স পরিবহন ও প্রত্যয় পরিবহনের দুটি দ্রুতগতির বাসের মাঝে চাপা পড়ে তোফাজ্জল হোসেন (৬০) নামে এক সিএনজিচালক গুরুতর আহত হন। স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। দুর্ঘটনায় সিএনজি যাত্রী নিপুণ চন্দ্র রায় (৩০), তার বোন কিরণ রায় (৪০), ভাগনি রিকা রায় (১৫) আহত হয়েছেন। তোফাজ্জলের বাড়ি ভোলা বোরহানউদ্দিন উপজেলার বাতেন বাড়ি গ্রামে। পরিবার নিয়ে তিনি মোহাম্মদপুর চাঁদ উদ্যান এলাকায় থাকতেন।

নিহতের স্বজন কামাল মীর জানান, একটি বাস অপর বাসকে ওভারটেক করতে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় আহত তিনজন ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

পাবনা সদর থানার ওসি ওবাইদুল হক জানান, গতকাল সকাল ১০টার দিকে সদর উপজেলার ডিসি রোডে পথচারী এক নারীকে বাঁচাতে গিয়ে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। তারা হলেনÑ সদর উপজেলার বলরামপুর গ্রামের আমিন প্রামাণিকের ছেলে হাফেজ ওয়ালিদ (২২) ও শফিক প্রামাণিকের ছেলে প্রান্ত হোসেন (১৬)। তারা সম্পর্কে আপন চাচা-ভাতিজা। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান ওসি।

কুষ্টিয়ার খোকসা থানার ওসি মেহেদী মাসুদ জানান, উপজেলার শিমুলিয়া নামক স্থানে গতকাল দুপুর আড়াইটার দিকে বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে ঘটনাস্থলেই মোকাদ্দেস শেখ (৩৬) নামে এক যুবক মারা যান। দুর্ঘটনায় আহত হন সাতজন। মোকাদ্দেস উপজেলার কমলাপুর গ্রামের বাসিন্দা। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা থানার ওসি আবদুল মালেক জানান, গতকাল দুপুর ৩টার দিকে উপজেলার সৈয়দাবাদ ও মনকশাই এলাকার মাঝামাঝি স্থানে বাসচাপায় শরীফ মিয়া (১৮) নামে এক যুবক নিহত হন। তিনি উপজেলার বাদৈর গ্রামের আলতাফ মিয়ার ছেলে। দুর্ঘটনায় রিফাত মিয়া (১৬) নামে আরেক কিশোর আহত হয়েছে। ওসি বলেন, মনকশাই থেকে মোটরসাইকেল চালিয়ে শরীফ ও রিফাত তিনলাখপীর এলাকায় যাচ্ছিল। পথে একটি বাস তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই শরীফ মারা যান।