প্রি-পেইড মিটার বন্ধের দাবিতে সড়ক অবরোধ|150062|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২১ জুন, ২০১৯ ০০:০০
প্রি-পেইড মিটার বন্ধের দাবিতে সড়ক অবরোধ
পিরোজপুর ও নরসিংদী প্রতিনিধি

প্রি-পেইড মিটার বন্ধের দাবিতে সড়ক অবরোধ

বিদ্যুতের ডিজিটাল প্রি-পেইড মিটার স্থাপন বন্ধ ও স্থাপন করা মিটার খুলে নেওয়ার দাবিতে গতকাল পিরোজপুরের বলেশ্বর ব্রিজ এলাকায় খুলনা-বরিশাল মহাসড়ক অবরোধ করেন গ্রাহকরা। এক মাসের মধ্যে দাবি আদায় না হলে আরও কঠিন কর্মসূচি দেওয়ার ঘোষণা দেন তারা। প্রায় এক ঘণ্টা সড়ক অবরোধের ফলে এ সময় ওই সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

সড়ক অবরোধকালে বক্তারা বলেন, প্রি-পেইড মিটারে কী পরিমাণ জালিয়াতি হচ্ছে তার প্রমাণ মিলবে শুধু মিটার ভাড়া আদায়সংক্রান্ত বিষয়টি ঘিরেই। কেননা কত দিন পর্যন্ত মিটার ভাড়া নেওয়া হবে তা নির্দিষ্ট করে কোথাও বলা নেই। এমনকি মিটারের দামও বলা হয়নি। পুরনো মিটারটি খুলে যখন নতুন প্রি-পেইড মিটার লাগানো হয়েছিল, তখন বলা হয়েছিল মিটারের জন্য কোনো মূল্য নেওয়া হবে না। এখন মিটার ক্রয় বাবদ প্রতি মাসে টাকা কেটে নেওয়া হচ্ছে। পরে স্থানীয় প্রশাসনের অনুরোধে সড়ক অবরোধ তুলে নেওয়া হয়। এদিকে নরসিংদীতে পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির প্রি-পেইড মিটারে নানা রকম হয়রানি ও অনিয়মের অভিযোগ তুলে তা বন্ধ করার দাবিতে মানববন্ধন হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত শহরের নরসিংদী পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-২০-এর কার্যালয়সংলগ্ন শালিধা এলাকায় এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় ঢাকা-নরসিংদী সড়কের দুই পাশে শত শত নারী-পুরুষ বিক্ষোভ করেন। তারা প্রি-পেইড মিটারকে রাক্ষুসী বলে অভিহিত করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা পল্লীবিদ্যুতের পি-পেইড মিটারের নানা অসংগতি, অনিয়ম ও হয়রানির কথা তুলে ধরেন। তারা জানান, মিটার ভাড়া ও ডিমান্ড চার্জের নামে প্রতি রিচার্জেই গ্রাহকদের কাছ থেকে টাকা কেটে নেওয়াা হচ্ছে। অতিসত্বর এই প্রি-পেইড মিটার স্থাপন বন্ধের জন্য তারা সরকারের কাছে আহ্বান জানান। অন্যথায় ভবিষ্যতে আরও কঠোর কর্মসূচির ডাক দেওয়া হবে বলে তারা হুঁশিয়ারি দেন।

মানববন্ধনে চর আড়ালিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান সরকার, সাবেক ওয়ার্ড কমিশনার মোবারক হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা মোবারক হোসেন ভূঁইয়া, জিয়াউদ্দিন জিয়া, কাইয়ুম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।