পুলিশের ভয়ে ঘরে বসে আন্দোলনে সফলতা আসবে না: ফারুক|154520|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১২ জুলাই, ২০১৯ ০১:০৭
পুলিশের ভয়ে ঘরে বসে আন্দোলনে সফলতা আসবে না: ফারুক
নিজস্ব প্রতিবেদক

পুলিশের ভয়ে ঘরে বসে আন্দোলনে সফলতা আসবে না: ফারুক

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য জয়নুল আবদিন ফারুক বলেছেন, পুলিশের হাতে গ্রেফতার কিংবা নির্যাতনের ভয়ে ঘরে বসে থাকলে আন্দোলনে সফলতা আসবে না। আর কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তিও হবে না।

বৃহষ্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অপরাজেয় বাংলাদেশ নামক সংগঠনের উদ্যোগে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে তিনি এসব কথা বলেন।

ফারুক বলেন, দেশের জনগণ বিএনপি নেতাদের বলছেন কর্মসূচি দেওয়ার জন্য। আন্দোলনে রাজপথে  নামার সাহস সবারই আছে। তাই কৌশল নির্ধারণ করে রাজপথে নেমে আন্দোলন করতে হবে। দেশের জনগণ বিএনপির সঙ্গে আছে।

তিনি বলেন, আন্দোলনের কর্মসূচি দিলে যাদের দিয়ে সরকার ৩০ ডিসেম্বরের ভোট ২৯ তারিখে করিয়েছে তারা বাধা দেবেন। কিন্তু সেই পুলিশের ভয়ে রাজপথে না নেমে ঘরে বসে থাকলে কারাবন্দি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি সম্ভব হবে না।

দলের শীর্ষ নেতাদের কাছে কর্মসূচি ঘোষণার দাবি করে সাবেক এই বিরোধী চীফ হুইপ বলেন, মহাসচিব বলেছেন, সাহস হারানো যাবে না, ধৈর্য্য ধারণ করতে হবে। কিন্তু কতো দিন নেতাকর্মীরা ধৈর্য্য ধারণ করবেন। তৃণমূল প্রস্তুত হয়েছে। গ্যাস, বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি, গুম-হত্যা-শিশু ধর্ষণের প্রতিবাদ জানাতে জনগণ বিএনপির কাছে কর্মসূচি চায়।

সরকারকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া ১৮ মাসের উপরে কারাগারে আছেন। কি কারণে তাকে এতো ভয় ? ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে কেনো এতো ভয়? তাকে দেশে আসতে দিন, রাজনীতি করতে দিন। যদি কোনো অন্যায় করে থাকেন তবে দেশে আইন আছে।  তারেক রহমানকে নির্বাসিত করে তার বিরুদ্ধে কথা বলবেন সেটা তো রাজনৈতিক কোনো কর্মকান্ড না। আওয়ামী লীগের মত এতো প্রাচীন একটি রাজনৈতিক দলের নেতাদের মুখে এসব শোভা পায় না।

‘স্বৈরাচার এরশাদ পদত্যাগ করতে চাননি’ এমন মন্তব্য করে ফারুক বলেন, নব্বুইয়ে এরশাদও পদত্যাগ করতে চাননি। পদত্যাগের কয়েক ঘন্টা আগে কোথায় ব্রিজ উদ্বোধন করতে গিয়ে হাসতে হাসতে বলেছিলেন কিসের পদত্যাগ ? কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই এরশাদেরও পতন হয়েছে। অহংকার পতনের মূল্য লক্ষণ। দলের নেতারা যাতে সংযত হয়ে কথা বলেন সে নির্দেশ দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি অনুরোধ রাখেন বিএনপির এই নেতা।

সংগঠনের সভাপতি ভিপি ইব্রাহিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে অন্যানের মধ্যে বক্তব্য দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য অধ্যাপক সিরাজ উদ্দিন আহমেদ, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ফরিদা মনি শহীদুল্লাহ, কৃষক দলের সদস্য লায়ন মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার, কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন, এম জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।