ধোনির রানআউট নিয়ে আইসিসির ভিডিওতে ফুঁসছে ভারতীয়রা|154588|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১২ জুলাই, ২০১৯ ১১:৩৩
ধোনির রানআউট নিয়ে আইসিসির ভিডিওতে ফুঁসছে ভারতীয়রা
অনলাইন ডেস্ক

ধোনির রানআউট নিয়ে আইসিসির ভিডিওতে ফুঁসছে ভারতীয়রা

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেমি-ফাইনালে শেষ মুহূর্তে মহেন্দ্র সিং ধোনির রানআউটেই এবারের বিশ্বকাপে যবনিকাপাত ঘটে ভারতের। সেই রানআউট নিয়ে বিশ্বকাপের অফিসিয়াল টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেছে আইসিসি। এই ভিডিওতে ভারতের কোটি মানুষের আবেগকে হেয় করা হয়েছে বলে দেশটির অনেক সমর্থক। বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ সংস্থার এমন আচরণে ক্ষোভে ফুঁসছে তারা।

ভারতের ইনিংসের তখন আর ১০ বল বাকি ছিল। জয়ের জন্য বিরাট কোহলির দলের দরকার ছিল ২৫ রান। ৪৮তম ওভারের তৃতীয় বলে কোনো রকমে ব্যাটে বল ছোঁয়ায়েই রানের জন্য দৌঁড় দেন ধোনি। সুবিধাজনক অবস্থানে না থাকলেও ২ রান নেয়ার জন্য প্রাণপণ দৌড়িয়েছিলেন তিনি।

কিন্তু অসাধারণ এক থ্রোতে ভেঙে দেন স্ট্যাম্প। শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি ১৮ রানে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে ভারত। ধোনির আউটের ওই মুহূর্তটিকে বিশ্বখ্যাত চলচ্চিত্র ‘টার্মিনেটর’-এর আদলে পুনরায় উপস্থাপন করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করে আইসিসি। যেখানে নিউজিল্যান্ডের গাপটিলকে দেখান হয়েছে, চলচ্চিত্রটির অভিনেতা আর্নল্ড শোয়ার্জনেগারের ভূমিকায়। টার্মিনেটর সিরিজের সেই বিখ্যাত 'হাস্তা লা ভিস্তা, বেবি' ডায়লগটি বিকৃত করে আইসিসি ধোনির ভিডিও ব্যবহার করে লিখেছে- “হাস্তা লা ভিস্তা, ধোনি।”

একে তো দল হারার কষ্টে আছেন ভারতীয় সমর্থকরা, তারপর এই ভিডিও দেখে আরও ক্ষেপেছেন তারা। টুইটারে আইসিসির ভিডিওটির প্রত্যুত্তরে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাকে একহাত নিয়েছেন ভারতীয়রা। কেউ কেউ তো মন্তব্য করেছেন ভারত হারাতে আইসিসি খুশি হয়ে এই ভিডিও তৈরি করেছে।

কয়েকজন আবার খুব কড়া ভাষায় আইসিসির সমালোচনা করেছেন। হৃদয়বিদারক ঘটনাটি নিয়ে এমন ভিডিও না দিতে অনুরোধ জানিয়েছেন অনেকে। একজন টুইটারে লিখেছেন- “প্রিয় আইসিসি, অনুগ্রহ করে আমাদের আবেগ নিয়ে খেলবেন না।”

আরেকজন লিখেছেন, “বারবার এটা দেখাবেন না, প্লিজ। আমরা এটা সইতে পারি না। আমি ৩-৪ ঘণ্টার বেশি সময় কেঁদেছি...।”