কোনও হিন্দুকে ভারত ছাড়তে হবে না: অমিত শাহ|171381|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১ অক্টোবর, ২০১৯ ২৩:১৬
কোনও হিন্দুকে ভারত ছাড়তে হবে না: অমিত শাহ
অনলাইন ডেস্ক

কোনও হিন্দুকে ভারত ছাড়তে হবে না: অমিত শাহ

ভারতের জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) ও নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি) নিয়ে কথা বলেছেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। কোনও হিন্দুকে ভারত ছাড়তে হবে না বলেও জানিয়ে দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত।

প্রতিবেশী দেশগুলি থেকে আসা হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন, খ্রিস্টানদের প্রত্যেককে নাগরিকত্ব দিয়ে দেওয়ার জন্য বিল পাশ করতে চলেছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।  

তবে এক জন অনুপ্রবেশকারীকেও ভারতে থাকতে দেওয়া হবে না বলেও সতর্ক বার্তা দিয়েছেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিজেপি সভাপতি।

মঙ্গলবার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামের জনসভায় অমিত শাহ এনআরসি নিয়ে কী বলেন, সে দিকেই তাকিয়ে ছিল গোটা পশ্চিমবঙ্গ।  

আসামে এনআরসির চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশিত হতেই পরিস্থিতি বদলে যায়। আসামের ১৯ লক্ষ বাসিন্দার নাম চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়ে। তার মধ্যে হিন্দু বাঙালির সংখ্যাও অনেক। গোর্খা, বিহারি, মারোয়াড়ি-সহ অন্যান্য জনগোষ্ঠীরও অনেকের নাম বাদ যায়।

ভারতে যে হিন্দুরা রয়েছেন তাদের আতঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই— দিলীপ বার বার এই বার্তাই দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন। তবে অমিত শাহ ১ অক্টোবর কী বলেন, তা শোনার অপেক্ষায় ছিল বিজেপির পশ্চিববঙ্গ নেতৃত্বও।

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি তথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ দিন নিজের ভাষণে এনআরসি প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমি বাংলার জনতাকে সত্যিটা বলতে এসেছি।’

কোনও রাখঢাক না করে সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে লক্ষ্য করে অমিত শাহ বলেন, ‘মমতাজি বলছেন, এনআরসি হলে লক্ষ লক্ষ হিন্দু শরণার্থীকে বাংলা ছেড়ে যেতে হবে। এর চেয়ে বড় কোনও মিথ্যা হয় না।’

বিজেপি সভাপতি বলেন, ‘আমি সবার সামনে আশ্বস্ত করছি, সব শরণার্থীকে আশ্বস্ত করছি, যারা এ দেশে চলে এসেছেন, তাদের কাউকে ভারত ছাড়তে বাধ্য করা হবে না।’

এনআরসি নিয়ে তৃণমূল যা বলছে, তা ‘সম্পূর্ণ মিথ্যা’ বলে অমিত শাহ এ দিন দাবি করেন। তাঁর কথায়, ‘এই মিথ্যাটা ছড়ানো হচ্ছে বাংলার মানুষকে উস্কে দেওয়ার জন্য।’

অমিত শাহ বলেন, ‘এনআরসি তৈরি করার আগে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল আনছে ভারত সরকার। ভারতে যত হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন, খ্রিস্টান এসেছেন, তাঁদের সবাইকে নাগরিকত্ব দিয়ে দেওয়া হবে। চিরকালের জন্য দিয়ে দেওয়া হবে।’