পর্যটকে বদলে যাওয়া সৌদি|172829|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০
পর্যটকে বদলে যাওয়া সৌদি

পর্যটকে বদলে যাওয়া সৌদি

সৌদি আরবের রক্ষণশীল তকমা ভাঙার চেষ্টা করছেন কার্যত শাসক যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। তার অর্থনৈতিক ও সামাজিক সংস্কার কার্যক্রম বাস্তবায়নে দেশটি অনেক সংস্কারমূলক পদক্ষেপ নিয়েছে। বিশেষ করে নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় রক্ষণশীল অনেক নীতি বাদ দিয়েছে। ফলে দেশটিতে এখন নারীরা গাড়ি চালাতে পারেন। স্টেডিয়ামে বসে খেলা ও সিনেমা হলে ছবি দেখতে পারেন। শপিংমল ও বিনোদন কেন্দ্রে অনেকে ঘুরছেন পাশ্চাত্যের পোশাকে।

আগে যেখানে দেশটিতে হজব্রত, ব্যবসায়ী ও শ্রমিকদের আসার সুযোগ দেওয়া হতো; সম্প্রতি সেখানে প্রথমবারের মতো পর্যটক ভিসা অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এরপর সম্প্রতি বৈবাহিক সম্পর্ক ছাড়া বিদেশি নারী-পুরুষ সৌদি আরবের হোটেলে একসঙ্গে থাকতে পারবেন বলে ঘোষণা দেওয়া হয়। এরই প্রভাব পড়েছে দেশটির পর্যটন খাতে। বিপুলসংখ্যক পর্যটক বেড়াতে যাচ্ছেন।

গতকাল মঙ্গলবার সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে, প্রথমবারের মতো পর্যটক ভিসা অনুমোদনের পর ১০ দিনে ২৪ হাজারের বেশি বিদেশি এ সুবিধা নিয়েছেন। বার্তা সংস্থা এএফপি বলছে, তেল অর্থনীতি থেকে বের হতে গত ২৭ সেপ্টেম্বর রিয়াদ পর্যটক ভিসা ও হলিডে মার্কেটের অনুমোদন দেয়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাতে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানায়, এরপর ১০ দিনে যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, ইউরোপের বিভিন্ন দেশ, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া, চীন, কাজাখস্তানসহ ৪৯টি দেশের ২৪ হাজার বিদেশি পর্যটক ভিসা নিয়ে সৌদি আরবে এসেছেন।

ঘুরতে আসাদের সুবিধার জন্য নারীদের পোশাক সম্পর্কিত কিছু বিধিনিষেধও শিথিল করা হয়েছে। ভ্রমণ ভিসার ক্ষেত্রে বলা হয়েছে, নারীরা চাইলে স্বামী বা অভিভাবক ছাড়াই সৌদি আরব ভ্রমণ করতে পারবেন। পর্দা করার দরকার নেই।

সৌদি কর্র্তৃপক্ষ আশা করছে, বিদেশিরা আকৃষ্ট হলে পর্যটন খাতে দেশি-বিদেশি বিপুল বিনিয়োগ হবে। ২০৩০ সালের মধ্যে জিডিপিতে এ খাতের অবদান ৩ শতাংশ থেকে ১০ শতাংশে উন্নীত হবে।

পর্যটনমন্ত্রী আহমদ আল-খাতিব বলেন, ‘ইউনেস্কো ঘোষিত পাঁচটি বিশ্ব ঐতিহ্য, প্রাণবন্ত এক স্থানীয় সংস্কৃতি, শ্বাসরুদ্ধকর প্রকৃতি রয়েছে আমাদের। বিদেশিদের সঙ্গে আমরা এই ভা-ারগুলো ভাগ করছি। আশা করছি, তারা নিরাশ হবেন না।’