মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

তুরস্কে শতাধিক সেনাসদস্য গ্রেফতার

আপডেট : ১০ নভেম্বর ২০১৮, ০৬:২২ পিএম

ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানে জড়িত থাকার অভিযোগে ১০৩ সেনাসদস্যকে গ্রেফতার করেছে তুরস্ক। ২০১৬ সালের ওই অভ্যুত্থান চেষ্টায় কয়েকশ’ লোক নিহত হয়।

তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আনাদলু শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ইস্তাম্বুল থেকে ৭৪ এবং অন্যান্য প্রদেশ থেকে ৩১ সেনাসদস্যকে গ্রেফতার করে পুলিশ।   

পুলিশ জানায়, গ্রেফতারকৃতরা সবাই সেনাবাহিনীর সদস্য। তাদের মধ্যে কর্নেল এবং লে. কর্নেল পর্যায়ের কর্মকর্তাও রয়েছেন।

তুর্কি প্রসিকিউটর জানিয়েছে, অভিযুক্তরা গুলেনবাদীদের সঙ্গে পেফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ রাখতেন।

যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করা দেশটির ধর্মীয় ব্যক্তিত্ব ফেতুল্লাহ গুলেনকে ওই অভ্যুত্থান চেষ্টার জন্য দায়ী করে আসছেন প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান।

ওই ব্যর্থ অভ্যুত্থানে জড়িত থাকার অভিযোগে গত দুই বছরে ৮০ হাজার সামরিক সদস্যকে আটক করা হয়েছে। তুরস্কের রাষ্ট্রীয় ও সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে গুলেন মুভমেন্টের সমর্থকদের অনুপ্রবেশ ঘটেছে এমন অভিযোগে এদেরকে চিহ্নিত করতে নিয়মিত অভিযান চালাচ্ছে আঙ্কারা।

যদিও ফেতুল্লা গুলেন ২০১৬ সালের ১৫ জুলাইয়ের অভ্যুত্থান চেষ্টার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। ১৯৯৯ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয়ে আছেন তিনি।

এরদোয়ানকে ক্ষমতাচ্যুত করার এ ব্যর্থ চেষ্টায় প্রায় ২৫০ জন নিহত হন। সেনাবাহিনীসহ নিরাপত্তা বাহিনীর বড় একটি অংশ এর সঙ্গে জড়িত ছিল। তাদের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষসহ নিরাপত্তা সংস্থার অন্য অংশ প্রতিরোধ গড়ে তুললে অভ্যুত্থান ব্যর্থ হয়।

তবে এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে এখন পর্যন্ত দেড় লাখেরও বেশি মানুষকে গ্রেফতারের ঘটনায় ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ তুরস্কের পশ্চিমা মিত্ররা উদ্বেগ প্রকাশ করে আসছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য ছাড়াও সরকারি চাকুরিজীবী, বিচারক, শিক্ষক ও পুলিশ সদস্য রয়েছেন।

   
সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত