বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

জিততে শেষ দিন বাংলাদেশের চাই ৮ উইকেট

আপডেট : ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ০৮:৪০ পিএম

দ্বিতীয় ইনিংসে মাহমুদউল্লাহর দারুণ ব্যাটিংয়ে জিম্বাবুয়েকে বড় লক্ষ্যমাত্রা বেঁধে দিয়েছে বাংলাদেশ। ঢাকা টেস্ট নিজেদের করে নিয়ে সমতায় সিরিজ শেষ করতে হলে শেষ দিন স্বাগতিকদের চাই প্রতিপক্ষের আট উইকেট।

চতুর্থ দিনের খেলা শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৭৬। ব্রেন্ডন টেইলার ৪, শন উইলিয়ামস ২ রানে অপরাজিত আছেন।

প্রথম ইনিংসে ২১৮ রানের লিড পাওয়া বাংলাদেশ মঙ্গলবার দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মোটেও ভালো করতে পারেনি। দলীয় ২৫ রানে চার উইকেট হারানো দলকে পঞ্চম উইকেট জুটিতে টেনে তুলেন মাহমুদউল্লাহ ও মোহাম্মদ মিঠুন।

১৪৩ রানের এই জুটিতে ফাটল ধরান সিকান্দার রাজা। তার আগের বলে ছক্কা হাঁনানো মিঠুন পরের বলে একই চেষ্টা করতে গিয়ে ধরা পড়েন উইকেটরক্ষক রেজিস চাকাভার হাতে।

অভিষেক টেস্টে প্রথম ইনিংসে শূন্য রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে দলের ভীষণ প্রয়োজনের সময় মিঠুন করলেন ৬৭ রান। ১১০ বলের ইনিংসে ৪টি চার, ছক্কা ১টি। বাংলাদেশের রান ৫ উইকেটে ১৪৩, লিড ৩৬১ রানের।

উইকেটের একপ্রান্ত আগলে রাখেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে তাকে বেশি সঙ্গ দিতে পারলেন না আরিফুল হক। মেহেদী হাসান মিরাজকে নিয়ে সপ্তম উইকেটে উইকেট পতনের লাগাম টেনে ধরেন মাহমুদউল্লাহ। লিড বাড়ানোর পাশাপাশি দ্রুত গতিতে এগিয়ে যান শতকের পথে।

ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় শতকটি পেয়ে যাওয়ার পর পরই ৬ উইকেটে ২২৪ রানে ইনিংস ঘোষণা করেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। ১২২ বলে চার চার, দুই ছক্কায় ১০১ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। আট বছর পর টেস্টে শতকের দেখা পেলেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। এই সময়ে খেলেছেন ৩৫ টেস্ট। দুই সেঞ্চুরির মধ্যে বাংলাদেশের কোনো ব্যাটসম্যানের দীর্ঘতন অপেক্ষা এটি। অপরাজিত ৭৩ রানের জুটিতে দুই চারে ২৭ রান করেন মিরাজ।

জিম্বাবুয়ের বোলারদের মধ্যে কাইল জার্ভিস, ডোনাল্ড টিরিপানো দুটি করে উইকেট নেন। একটি করে উইকেট নেন উইলিয়ামস ও রাজা।

৪৪৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ইনিংসে জিম্বাবুয়েকে ভালো শুরু এনে দেন দুই ওপেনার হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও ব্রায়ান চারি। তবে এই জুটিকে ভয়াবহ হয়ে ওঠতে দেননি মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম। দিনের শেষ বেলায় স্বাগতিক দলের ভালো শুরুর তৃপ্তি কেড়ে নেন তারা।

মিরাজের বলে শর্ট লেগে থাকা মুমিনুলের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন ২৫ রান করা মাসাকাদজা। ৪৩ রান করে তাইজুলের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন চারি। পরাজয় এড়াতে শেষদিন জিম্বাবুয়ের চাই আরও ৩৬৭ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ৫২২/৭ (ইনিংস ঘোষণা)

জিম্বাবুয়ে ১ম ইনিংস: ৩০৪

বাংলাদেশ ২য় ইনিংস: ৫৪ ওভারে ২২৪/৬ (ইনিংস ঘোষণা) (লিটন ৬, ইমরুল ৩, মুমিনুল ১, মিঠুন ৬৭, মুশফিক ৭, মাহমুদউল্লাহ ১০১*, আরিফুল ৫, মিরাজ ২৭*; জার্ভিস ১১-২-২৭-২, টিরিপানো ১১-১-৩১-২, উইলিয়ামস ১৬-২-৬৯-১, রাজা ৭-০-৩৯-১, মাভুটা ৯-০-৫২-০)।

জিম্বাবুয়ে ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৪৪৩) ৩০ ওভারে ৭৬/২ (মাসাকাদজা ২৫, চারি ৪৩, টেইলর ৪*, উইলিয়ামস ২*; মুস্তাফিজ ৩-১-২-০, তাইজুল ১৩-২-৩৪-১, খালেদ ৪-১-১৫-০, মিরাজ ৭-২-১৬-১, আরিফুল ৩-১-৭-০)

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত