মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

একজনের বিরুদ্ধে ৩৬ হাজার খুনের অভিযোগ

আপডেট : ২৫ নভেম্বর ২০১৮, ০৭:২২ পিএম

এডলফ হিটলারের নাৎসি বন্দি শিবিরে হ্যান্স এইচ (৯৫) নামে এক প্রহরীর বিরুদ্ধে ৩৬ হাজার বন্দিকে হত্যার অভিযোগ এনেছেন জার্মানির একটি আদালত। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালে হ্যান্স অস্ট্রিয়ায় মাথুউসন কনসেনট্রেশন ক্যাম্প পাহারার দায়িত্বে ছিল।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষের দিকে মাথুউসন ক্যাম্পে ৯৫ হাজার বন্দিকে হত্যা করা হয়। বন্দির মধ্যে ১৪ হাজার ছিল ইহুদি। এই ক্যাম্পে বন্দিদের বেশিরভাগ রুশ ও স্প্যানিশ। তারা স্পেনের স্বৈরশাসক ফ্রান্সিস্কো ফ্রাঙ্কোর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছিল।

গত শুক্রবার জার্মান প্রসিকিউটর মার্টিন স্টেলটনার এসব তথ্য জানান। বার্লিন পাবলিক প্রসিকিউটর অফিসের মতে, ১৯৪৪ সাল থেকে ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত এই ক্যাম্পে ঐতিহাসিক অপরাধ সংগঠিত হয়। সে সময় হ্যান্সের প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ হস্তক্ষেপে কমপক্ষে ৩৬ হাজার ২২৩ জন বন্দিকে হত্যা করা হয়।

প্রসিকিউশন অফিস থেকে বলা হয়েছে, এই ক্যাম্পে বেশিরভাগ বন্দিকে গ্যাস প্রয়োগের মাধ্যমে হত্যা করা হয়। এছাড়া খাবার না দিয়ে, ঠান্ডা ঘরে আটকে রেখে, ইনজেকশন ও গুলি করে হত্যার মতো নির্মম ঘটনা অহরহ ঘটেছে।

অভিযুক্ত ব্যক্তি বন্দি হত্যার সবগুলো উপায় সম্পর্কে অবগত ছিল। তার সহযোগিতার কারণে এতগুলো মানুষকে করুণভাবে হত্যা করা সহজ হয়।

জার্মানির সাম্প্রতিক আইন অনুসারে হত্যার সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত না থাকলেও নাৎসি ক্যাম্পের প্রহরীদের হত্যার সহযোগী হিসেবে আইনের মুখোমুখি করা হচ্ছে।

প্রসিকিউশন জানিয়েছে, অভিযুক্ত হ্যান্স বন্দি শিবিরের ভেতরে এবং বাইরে একজন কর্পোরালের সমমর্যাদায় দায়িত্ব পালন করতেন। হ্যান্সের বিরুদ্ধে উপযুক্ত শাস্তির কথা ভাবছে দেশটির আদালত।

   
সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত