শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

দুই কোরিয়ায় ফের রেল যোগাযোগ

আপডেট : ০১ ডিসেম্বর ২০১৮, ০১:৩৬ পিএম

দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউল থেকে একটি ট্রেন শুক্রবার সকালে উত্তর কোরিয়ার দিকে যাত্রা করেছে। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রকৌশলী ও সরকারি কর্মকর্তাদের বহনকারী ট্রেনটির যাত্রার মধ্যদিয়ে এক দশকের মধ্যে এই প্রথম দুই দেশের রেল যোগাযোগ শুরু হলো।

একটি বার্তা সংস্থার বরাতে টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, দক্ষিণ কোরীয় টেলিভিশনে দেখা গেছে ট্রেনটি দোরাসান স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করে। দেশটির পশ্চিমাঞ্চলের এই স্টেশনটির অবস্থান আন্তঃকোরীয় সীমান্তের কাছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার পরিবহনমন্ত্রী কিম হু-মি বলেন, এর মাধ্যমে উত্তর ও দক্ষিণের রেল যোগাযোগে সহযোগিতার যাত্রা পুনরায় শুরু হলো। দুই দেশের অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে এই যোগযোগ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

ছয়টি বগি নিয়ে যাত্রা শুরু করা ট্রেনটি উত্তর কোরিয়ার সীমানায় পৌঁছার পর ইঞ্জিন পরিবর্তন করবে। ট্রেনটি পাড়ি দেবে মোট ২,৬০০ কিলোমিটার। দীর্ঘ এই রেললাইনের সংস্কারে আগামী পাঁচ বছরে ৫৬ দশমিক ৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করা হবে বলে জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া।

রেলপথটি উত্তর কোরিয়ার কেসং সিটি ও সিনিজু সিটির মধ্যে সংযোগ সৃষ্টি করেছে। চীনা সীমান্ত সংলগ্ন সিনিজু থেকে মাউন্ট কামগ্যাংয়েও গেছে লাইনটি, যা রাশিয়া সীমান্ত সংলগ্ন তুমান নদীর কাছে অবস্থিত।

১৯৪৮ সালে বিভক্তের আগ পর্যন্ত দুই কোরিয়ার মধ্যে রেল যোগাযোগ ছিল। কয়েক দশক বন্ধ থাকার পর পশ্চিম থেকে পূর্ব পর্যন্ত বিস্তৃত রেলপথটি ২০০৭ সালে পুনরায় চালু হয়। কিন্তু দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্কের অবনতি হওয়ায় এক বছর পরই তা বন্ধ হয়ে যায়। পরমাণু কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে উত্তর কোরিয়ার উপর জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞার কারণে বর্তমান প্রকল্পটি চালু হতে দেরি হয়েছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত