সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

নেইমারের ট্যাটু

আপডেট : ০৩ জানুয়ারি ২০১৯, ০১:৫৭ এএম

ট্যাটু আঁকায় যদি রেকর্ড থাকত তাতে নেইমারের নামটা উঠে যেত সহজেই। একজনের শরীরে যদি ৪৯টি ট্যাটু থাকে তবে রেকর্ড বইয়ে নাম ওঠা কঠিন কি! জীবনের বিভিন্ন উপলক্ষে বা মন চাইলেই শরীরে বিভিন্ন ট্যাটু করিয়েছেন ব্রাজিল তারকা। আর একটি ট্যাটু করালে এই বিষয়ে হাফসেঞ্চুরি করবেন নেইমার। তার ট্যাটুপ্রীতি শুরু হয় ২০১০-এ। একটি শপিং সেন্টারে এক স্টোর ম্যানেজারের ট্যাটু মনে ধরে নেইমারের। তখনকার উঠতি তারকা নেইমার দোকানিকে জিজ্ঞাসাই করে বসলেন ট্যাটু কোথা থেকে করিয়েছে। দোকানি দিয়ে দিলেন ট্যাটু করানোর ঠিকানা। সে বছর ১০ ডিসেম্বর সেই ঠিকানায় ইসমায়েল নামে ট্যাটু করার জন্য নাম লেখান নেইমার। ছদ্ম নাম দিলেও ট্যাটু সেন্টারে গিয়ে সবাইকে চমকে দেন তিনি। তার শরীরের ৪৯টি ট্যাটুর মধ্যে পরিবার, ফুটবলপ্রীতি ও ভালোবাসা, নিজের দর্শন এবং বিশ্বাস এসব বিষয়ও আছে। এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ হলো তার দুই হাতে মা, বোন ও ছেলের নামসহ ছবি। তবে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হবে বাম হাতে কব্জির ওপরই করা ২০১৬ অলিম্পিক লোগোর ট্যাটু। অলিম্পিক ফুটবলে দেশের হয়ে প্রথম স্বর্ণ জেতার পর তা করিয়েছিলেন নেইমার।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত