শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কয়রা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

বিএনপি-জামায়াত নীরব প্রচারে সরব আ.লীগ

আপডেট : ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:৩০ এএম

খুলনার কয়রা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রতীক নৌকা পেতে নড়েচড়ে বসছেন আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরা। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নিজের গুণাগুণ তুলে ধরে পাড়া-মহল্লায় গিয়ে প্রার্থী হওয়ার আগ্রহের কথা জানান দিচ্ছেন। এদিকে বিএনপি-জামায়াত মাঠে না নামলেও সম্ভাব্য প্রার্থীরা ভেতরে প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

কয়রা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রস্তুতি নিচ্ছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি জিএম মোহসিন রেজা, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান এস এম শফিকুল ইসলাম এবং বন ও পরিবেশবিষয়ক উপকমিটির সদস্য আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ। গত নির্বাচনে মোহসিন রেজা জামায়াতের প্রার্থী মাওলানা তমিজ উদ্দিনের কাছে প্রায় ২০ হাজার ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন। কিন্তু একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জোটের নেতাকর্মীরা হামলা-মামলার শিকার হয়ে এখন বাড়িছাড়া। কেউ কেউ বাড়ি ফিরলেও, অনেকেই পুলিশ আতঙ্কে বাড়িতে থাকেন না। তবে কয়রা উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত জোট অংশগ্রহণ করতে চায় বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে। রাজনৈতিক কৌশলগত কারণে তারা নীরবে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির একাধিক নেতাকর্মী জানান, প্রচারের মাঠে না থাকলেও উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোমরেজুল ইসলাম ও খুলনা দক্ষিণ জেলা জামায়াতের সাবেক আমির ও বর্তমান চেয়ারম্যান মাওলানা আ খ ম তমিজ উদ্দিন চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোমরেজুল ইসলাম বলেন, ‘নির্বাচনে অংশগ্রহণের ব্যাপারে আমার কোনো ব্যক্তিগত মতামত নেই। দল যে সিদ্ধান্ত নেবে, সেটাই হবে।’ জামায়াত নেতা আ খ ম তমিজ উদ্দিন বলেন, তার নেতাকর্মীরা হামলা-মামলার শিকার। আদালতে হাজিরা দিতে আর জামিন নিতে তাদের দিন কাটে। তিনি বলেন, ‘আবার মার খাওয়ার জন্য কী নির্বাচন করব। আর ভোটের দরকার নেই।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত