শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

বাগেরহাটে চিকিৎসককে মারধর

আপডেট : ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:৩১ এএম

বাগেরহাট সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক শেখ ইমরান মোহাম্মদকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে রোগীর দুই স্বজনের বিরুদ্ধে। গত রবিবার রাত ৮টার দিকে সদর হাসপাতালের গেটে এই মারধরের ঘটনা ঘটে।পুলিশ অভিযোগ পেয়ে রাতেই ওই দুজনকে গ্রেপ্তার করে। রবিবার গভীর রাতে মারধরের শিকার চিকিৎসক শেখ ইমরান মোহাম্মদ বাদী হয়ে দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে সরকারি কর্তব্যকাজে বাধাদানের অভিযোগ এনে বাগেরহাট মডেল থানায় একটি মামলা করেছেন। গতকাল সোমবার সকালে পুলিশ তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে।গ্রেপ্তাকৃতরা হলেন বাগেরহাট পৌরসভার খারদ্বার এলাকার লিয়াকত খানের ছেলে মিলন খান (৩৯) এবং হাঁড়িখালী এলাকার সরোয়ার হোসেনের ছেলে মাসুম বিল্লাহ (৪৫)।

হাসপাতালে ভর্তি মিলন খানের স্ত্রী সেলিনা পারভীন চিকিৎসকের সঙ্গে তার স্বামী ও ভাইয়ের ঘটে যাওয়া ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

তার স্বামী ও ভাইকে পুলিশ যেমন আটক করেছে তেমনি তিনিও তার স্বামী ও ভাইকে যারা মারধর করেছেন তাদের বিচার কে করবে বলে প্রশ্ন রাখেন। তিনি তাদেরও বিচার দাবি করেন।

চিকিৎসককে মারধরের খবর সহকর্মী চিকিৎসক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে তারা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। তারা এই ঘটনার নিন্দা এবং দোষীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানান।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত