সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

রাঙ্গামাটিতে দুজনকে গুলি করে হত্যা

আপডেট : ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০২:৫৬ এএম

রাঙ্গামাটির কাপ্তাইয়ে রাইখালী ইউনিয়নের কারিগরপাড়া এলাকায় দুজনকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল সোমবার বিকেল ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন রাইখালী বাজার এলাকার মংচিনু মার্মা (৩৬) ও নারানগিরি গ্রামের মোহাম্মদ জাহেদ (২৫)। নিহত মংচিনু মার্মা জনসংহতি সমিতির সাবেক সদস্য বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

নিহতদের নিজেদের কর্মী দাবি করে হত্যাকাণ্ডের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগ।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় কয়েকজন জানান, বন্দুকধারী চার-পাঁচজন সন্ত্রাসী আগে থেকে কারিগরপাড়া বাজারের একটি চায়ের দোকানে অবস্থান করছিল। মংচিনু ও জাহেদ ওই দোকানে ঢোকার সঙ্গে সঙ্গে সন্ত্রাসীরা তাদের গুলি করে। এ সময় আশপাশের লোকজন দিগি¦দিক ছোটাছুটি করে পালিয়ে যায়। কারিগরপাড়া বাজারের দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। ওই দোকানের দরজার কাছে একজনের এবং দোকানের ভেতরে অন্যজনের লাশ পড়ে থাকে। পরে সন্ত্রাসীরা পাশর্^বর্তী পাহাড়ের দিকে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

তারা আরও জানান, নিহত মংসানু মারমা একসময় জনসংহতি সমিতিতে যুক্ত ছিলেন। গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে তিনি দল ত্যাগ করেন। জাহিদ ছিলেন তার বন্ধু।

রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক রফিক আহমেদ তালুকদার এক বিবৃতিতে জানান, আওয়ামী লীগের জেলা সভাপতি ও সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার এ হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা এবং অবৈধ অস্ত্রধারী খুনি সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের জোর দাবি জানিয়েছেন।

এদিকে সংবাদ পেয়ে চন্দ্রঘোনা থানার পুলিশ এবং স্থানীয় ক্যাম্পের বিজিবি ও সেনাসদস্যরা ঘটনাস্থলে যান। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি আশরাফ উদ্দিন বলেন, এলাকায় একটি চায়ের দোকানে বসে চা পান করার সময় মংসানু ও জাহিদের ওপর হামলা চালায় একদল দুর্বৃত্ত। এতে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। 

তিনি বলেন, ‘আমি  খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে এসে দুটি গুলিবিদ্ধ লাশ পড়ে থাকতে দেখেছি; কিন্তু কারা কী কারণে এদের গুলি করে হত্যা করেছে, সেটা কেউ জানাতে পারছে না। এর পেছনের কারণ বের করতে পুলিশ চেষ্টা করছে।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত