শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কোচিং সেন্টারে বাইরে তালা, ভেতরে ক্লাস

আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০১:৪০ এএম

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ না মেনেই চট্টগ্রাম নগরে চলছে কোচিং সেন্টারের কার্যক্রম। নিষেধাজ্ঞা এড়াতে কৌশলের আশ্রয় নিয়েছে কিছু প্রতিষ্ঠান। এগুলোর বাইরে তালা ঝুললেও ভেতরে ক্লাস চলছে। এ ছাড়া পাড়া-মহল্লায় স্কুলশিক্ষকদের ব্যাচভিত্তিক কোচিংও থেমে নেই।

এসএসসি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে ২৭ জানুয়ারি থেকে এক মাস সব কোচিং সেন্টার বন্ধের নির্দেশ দেয় সরকার। এ নিয়ে জেলা প্রশাসন ও র‌্যাবের অভিযানের পরও কোচিং সেন্টার বন্ধ হয়নি। গতকাল মঙ্গলবার নগরীর ‘কোচিং পাড়া’ খ্যাত চকবাজারে ঘুরে দেখা যায়, কিছু প্রতিষ্ঠানে বাইরে তালা ঝুলিয়ে ভেতরে ক্লাস চলছে। এর মধ্যে চট্টেশ্বরী রোডের ‘টিচিং হাট’-এ চলছিল ইংরেজি, হিসাববিজ্ঞান ও ফাইনান্স কোচিং। একই এলাকায় রেঙ কোচিং ও সেইঙ্গুন প্লাস কোচিংয়েও ভেতরে ক্লাস চলতে দেখা গেছে। চকবাজারের জয়নগর, চট্টগ্রাম কলেজের হোস্টেল গেটের আশপাশে চলছে প্রাইভেট কোচিং কার্যক্রম।

এদিকে গতকাল রাতে অভিযান চালিয়ে কোতোয়ালী থানা এলাকায় পাঁচটি কোচিং সেন্টারকে জরিমানা এবং সেগুলো সিলগালা করে দিয়েছে র‌্যাব। এগুলো হলো- প্রমিলা টিচিং হোম, স্টাডি পয়েন্ট, রাসেল স্পেশাল কেয়ার, আন্না কেয়ার ও বেসিক পয়েন্ট।

কিছু এলাকায় কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকলেও নিয়ন্ত্রণহীন অলিগলিতে সক্রিয় প্রাইভেট শিক্ষকরা। নগরীর নালাপাড়ার একতলা মসজিদ এলাকায় দেখা যায়, ৫-১০ জন করে ছাত্রছাত্রী কোচিংয়ে প্রবেশ করছে। আশিকুর রহমান নামে এক ছাত্র বলে, ‘কলেজিয়েট স্কুলের জাহেদ স্যারের কোচিংয়ে যাচ্ছি।’ একইভাবে পাথরঘাটার সেন্ট প্লাসিডস স্কুলের শিক্ষক তারেকের ব্যাচভিত্তিক কোচিং থেমে নেই। এ বিষয়ে কথা বলতে চাইলেও তিনি কিছু বলতে রাজি হননি। দেওয়ানজী পুকুপাড়ে র‌্যাবের অভিযানের পর বন্ধ পাওয়া গেছে অ্যাকাউন্টিং প্লাসসহ কয়েকটি কোচিং সেন্টার।

এদিকে নগরীর হেমসেন লেইন এলাকায় বাবলা স্যারের কোচিংয়ের সামনে দেখা যায় অভিভাবকদের জটলা। অভিভাবক টুম্পা সেন দেশ রূপান্তরকে বলেন ‘টাকা দিয়ে পড়াচ্ছি, ছেলের ভালোর জন্য। স্কুলে পড়া হলে কোচিংয়ে তো আনতে হতো না।’ দুপুর ২টায় পাথরঘাটায় দেখা যায়, প্রমিলা টিচিং হোম, এসটিসি কোচিং এবং মাইকেল স্যারের ইংরেজি কোচিং সেন্টারে ছাত্রছাত্রীদের ভিড়।

জানতে চাইলে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. আমিরুল কায়ছার দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘সরকারি নির্দেশনা সকল কোচিং সেন্টারের জন্য প্রযোজ্য। নির্দেশ অমান্য করায় পরীক্ষার দুই দিন আগে দুটি কোচিং সেন্টার সিলগালা করা হয়েছে। গত রবিবার র‌্যাব অভিযান চালিয়েছে। কেউ আড়ালে কোচিং চালু রাখলে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত