মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

‘আমি ভালো না’ লিখে তরুণীর আত্মহত্যা

আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯:০৩ পিএম

ঢাকার ধামরাইয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় ওই ঘর থেকে একটি চিরকুট উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার দুপুরে উপজেলার কালামপুর এলাকার গোলাম মোস্তফার ভাড়া বাড়ির ২য় তলার একটি কক্ষ থেকে ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে ধামরাই থানা-পুলিশ।

নিহত গৃহবধূর নাম শায়লা আক্তার (২০)। সে গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর থানার মহারাজপুর গ্রামের আলী হোসেনের মেয়ে। নিহত শায়লা বাবা-মায়ের সঙ্গে কালামপুর এলাকার গোলাম মোস্তফার ভাড়া বাড়িতে থাকত।  

ধামরাই থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান জানান, বুধবার দুপুরে ওই বাড়ির অন্যান্য ভাড়াটিয়ারা রুমের মধ্যে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় গৃহবধূ শায়লা আক্তারের ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখতে পায়। এ সময় তারা বিষয়টি ধামরাই থানায় জানালে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া মরদেহটি উদ্ধারের সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি চিরকুট উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে লেখা ছিল- আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। আমি ভালো না, তাই সবাই আমাকে ভুল বুঝে।

ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জেরে সে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। এ ছাড়া চিরকুটের হাতের লেখার সঙ্গে নিহতের হাতের লেখা মিলিয়ে দেখা হবে এবং পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত