সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

মিমের ‘দাগ হৃদয়ে’

আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:০২ পিএম

দর্শকনন্দিত মডেল ও চিত্রনায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম। বর্তমানে সমানতালে ব্যস্ত আছেন অভিনয়, মডেলিং ও নাচ নিয়ে। তবে মিম ভক্তদের জন্য সুখবর হলো বেশ বড় বিরতির পর রুপালি পর্দায় আগামীকাল ৮ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাচ্ছে তার অভিনীত তারকাবহুল চলচ্চিত্র ‘দাগ হৃদয়ে’। ঢাকার চলচ্চিত্র এখন বেশ সংকটে। দিনে দিনে কমছে ছবি নির্মাণের সংখ্যা, যার হাওয়া লেগেছে ঢালিউডের নায়িকাদের গায়েও। অনেক নায়িকার হাতেই নিয়মিত ছবি নেই। তাদের মুক্তিপ্রাপ্ত ছবির সংখ্যা কমেছে। কোনো কোনো নায়িকার সবশেষ ছবি মুক্তি পেয়েছে ছয় মাস, এক বছর বা তারও বেশি সময় আগে। কিন্তু হঠাৎই এই মাসে প্রথম সারির বেশ কজন নায়িকার ছবি মুক্তি পাচ্ছে। হঠাৎ যেন সুবাতাস বইতে শুরু করেছে ঢাকার চলচ্চিত্রাঙ্গনে। এ মাসে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবির নায়িকাদের মধ্যে শুরুতেই আসছে বিদ্যা সিনহা মিমের ছবি। একই দিনে মুক্তিপাবে পরীমনি অভিনীত ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’ ছবিটি।

তারেক সিকদার পরিচালিত ‘দাগ হৃদয়ে’ ছবিটিতে মিম ছাড়াও রয়েছেন বাপ্পী ও আঁচল। এ ছবিটির মাধ্যমে প্রায় এক বছর পর মিমের নতুন ছবি আসছে। ছবিটি নিয়ে ভালো প্রত্যাশা থাকলেও আরও আগে মুক্তি দরকার ছিল বলে মনে করেন মিম।

এই অভিনেত্রী বলেন, “ছবির গল্প ভালো। কাজও ভালো হয়েছে। তবে শ্যুটিং আগের, মুক্তি আরও আগে হলে ভালো হতো।’ তিনি আরও বলেন, ‘দাগ’ ছবিতে আমি একজন চিত্রশিল্পীর ভূমিকায় অভিনয় করেছি। এটি মূলত একটি ফ্যামিলি ড্রামা। একজন মহিলা চিত্রশিল্পীর জীবনের নানা চড়াই-উৎরাই দেখা যাবে ছবিটিতে। ছবিটিতে খুবই চমৎকার একটি শৈল্পিক আবেদন রয়েছে। যারা পরিচ্ছন্ন ছবি দেখতে ভালোবাসেন তারা খুব উপভোগ করবেন ছবিটি।”

এদিকে মিম সম্প্রতি থাইল্যান্ডের ব্যাংককে শেষ করে এসেছেন কলকাতার নতুন ছবি ‘থাইকারি’র শ্যুটিং। এই ছবিতে তার বিপরীতে আছেন কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেতা সোহম। মিম বলেন, ‘এর আগেও সোহমের সঙ্গে জুটি বেঁধে চলচ্চিত্রে কাজ করেছি। এটি আমাদের দ্বিতীয় ছবি। পুরো ছবির শ্যুটিং শেষ হয়েছে। শুধু ডাবিং বাকি আছে। খুবই মজার একটি গল্প। কমেডি পার্টটুকু চমৎকার। এ বছরই কলকাতার ছবিটি মুক্তি পাবে। আশা করি বাংলাদেশেও ছবিটি মুক্তি পাবে।’

এর বাইরে মিমের হাতে রয়েছে শাকিব খানের বিপরীতে ‘মামলা হামলা ঝামেলা’ শিরোনামের আরও একটি ছবির কাজ। ছবিটি পরিচালনা করবেন উত্তম আকাশ। ছবিটি সেলিম খানের ‘শাপলা মিডিয়া’ ব্যানারে নির্মিত হবে। গত বছর এই জুটির ‘আমি নেতা হব’ ছবিটি ব্যবসাসফল হয়। এগুলোতো গেল সব চলচ্চিত্রের খবর। মিম সম্প্রতি একটি তারকাবহুল ওয়েব সিরিজেও কাজ করেছেন। এটি তার প্রথম ওয়েব সিরিজ। এর নাম ‘বিউটি অ্যান্ড দ্য বুলেট’। লাক্সের ব্যানারে এটি নির্মাণ করেছেন জনপ্রিয় নির্মাতা অনিমেষ আইচ। এতে আরও অভিনয় করেছেন সুবর্ণা মুস্তাফা, তাহসান খান, আফরান নিশো, জাকিয়া বারী মম, ইমন, মিম মানতাশা, বাঁধন, লিংকন প্রমুখ। এটি অচিরেই অনলাইনে প্রকাশ করা হবে। মিম বলেন, ‘ওয়েব সিরিজ হলেও এর নির্মাণশৈলী ছিল একেবারেই চলচ্চিত্রের মতো। খুব ধরে ধরে কাজ করেছেন অনিমেষ দা। আর গল্পটিও খুবই সমসাময়িক। থ্রিলারধর্মী এই ওয়েব সিরিজের গল্প মূলত একটি রিয়েলিটি শো’কে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে। আমি ওই প্রতিযোগিতার একজন প্রতিযোগী। বিচারক হিসেবে আছেন সুবর্ণা ম্যাম। এই প্রতিযোগিতায় এসে কী ধরনের পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয় আমাকে তা দর্শক খুব উপভোগ করবেন বলে আমার বিশ^াস। এই কাজটি নিয়ে আমি অনেক আশাবাদী।’

অভিনয়ের বাইরের মিম লাক্সের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কাজ করছেন। তার করা লাক্সের সর্বশেষ বিজ্ঞাপনটিও সাড়া ফেলেছে। এ প্রসঙ্গে মিম বলেন, ‘লাক্সের মতো বিশ্ববিখ্যাত ব্র্যান্ডের বেশ কয়েকটি বিজ্ঞাপনে মডেল হওয়ার সুযোগ পেয়েছি। প্রতিটি টিভিসির জন্য অভূতপূর্ব দর্শক সাড়া পেয়েছি। এটা আমাদের দেশের যে কোনো তারকার জন্য অনন্য অর্জন বলতে হবে। সর্বশেষ যেটি করেছি তাতে আমি ছাড়াও রয়েছেন লাক্সতারকা মম ও মেহজাবিন। এই টিভিসিটি প্রচারের পরও দর্শক খুব পছন্দ করেছেন। ভবিষ্যতেও আরও ভালো ভালো বিজ্ঞাপনে দর্শক আমাকে দেখতে পাবেন বলে আশা রাখি।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত