বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

বাতাসে ভরা বসন্ত

আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:৫৩ পিএম

সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলো সব সময়ই তাদের পোশাকের ঢং আর ডিজাইনে নিয়ে আসে পরিবর্তন ও নতুনত্ব। এবারও তারা তৈরি করেছে নানা রঙের বসন্তের পোশাক। বেশির ভাগ ফ্যাশন হাউসই বসন্তের পোশাকে উজ্জ্বল রংকে প্রাধান্য দেয়। আর এসব আয়োজনে থাকে বাহারি রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবি, ফতুয়া, থ্রি-পিস, টি-শার্ট, শার্ট ইত্যাদি। সব ধরনের পোশাকেই রয়েছে বসন্তের ছোঁয়া। বসন্তকে ঘিরে পোশাকগুলোতে কাজ করা হয়েছে নানা ব্লক, টাইডাই, স্প্রে ব্লক, চুনরি, স্ক্রিনপ্রিন্ট, কারচুপি ইত্যাদি। পোশাকে তুলে ধরা হয়েছে তারুণ্য। বাসন্তী বা হলুদকে ফাল্গুনের রং মনে করা হয়। তবে বর্তমানে আর সেই ধারা নেই। এখন বাসন্তী ও হলুদ রঙের সঙ্গে কমলা, লাল এবং নতুন পাতার সবুজ রংকেও বসন্তের রং ধরা হয়।

বসুন্ধরা শপিং মলের দেশী দশের আউটলেট ঘুরে চোখে পড়ল হলুদ, গোলাপি আর লাল রঙের মিশেলে তৈরি পোশাক। মেয়েরা একটু উজ্জ্বল রঙের শাড়ি পছন্দ করছেন বলেও জানালেন বিক্রেতারা। শাড়িজুড়ে এই যে রঙের বৈচিত্র্য, তার মধ্যে যেন বসন্তের আবেদনটা কোনোভাবেই না হারিয়ে যায় শাড়ি কেনার সময় এটি মাথায় রাখার পরামর্শ দিলেন নিউএজ ফ্যাশনের বিক্রেতা আমিনুল হক।

যেহেতু শীতের শেষে প্রকৃতিতে মিষ্টি ফাগুনের হাওয়ার সঙ্গে হালকা গরমেরও ছোঁয়া থাকে। তাই এ সময় সুতি কাপড়কেই বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে এসব বাসন্তী পোশাকে। কটন, লিলেন, খাদি, ভয়েল এবং তাঁতের তৈরি বসন্তের পোশাক নিয়ে আসে বৈচিত্র্য। আর সাধারণত বসন্তের পোশাকের ডিজাইনে ফুলকে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয় এবং প্রকৃতির বিভিন্ন মোটিফও ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এবারও এর ব্যতিক্রম নয়। বসন্ত উৎসবের রং হিসেবে বাসন্তী হলুদ, কমলা, লাল, সাদা, লাইম গ্রিন উজ্জ্বল সব রংকে বেছে নিয়েছে বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস। ব্লক প্রিন্টের শাড়িতে করা হয়েছে কাঁথা, চুমকি ও গ্লাসের কাজ। অনেক পোশাকে করা হয়েছে এমব্রয়ডারি, স্ক্রিনপ্রিন্টের কাজ।

আর ছেলেদের বসন্তের পাঞ্জাবিতে উইভিং কাপড়ের নকশাও বেশি। আছে বিভিন্ন রং মিশিয়ে তৈরি কটি। তাগা আউটলেট ঘুরে দেখা গেল বিভিন্ন রঙের পাঞ্জাবির ওপর উজ্জ্বল কটিতেই সাজিয়েছে তাদের ছেলেদের পোশাক। পাঞ্জাবির বাইরে অনেকে টি-শার্ট পরেও ঘোরাফেরা করেন বসন্তে। তাই টি-শার্টের নকশায়ও বসন্ত এসে গেছে। টি-শার্টে বাসন্তী রং তো আছেই।

দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলো প্রতি বছরই বসন্তের রঙিন পোশাকের পসরা সাজায়। এ বছরও নানা রং, ডিজাইন আর মোটিফ নিয়ে বৈচিত্র্যময় পোশাকের আয়োজন করেছে হাউসগুলো। বিশ্ব রঙ, ইনফিনিটি, আড়ং, অঞ্জন’স, রঙ, বিবিয়ানা, কে-ক্র্যাফট, বাংলার মেলা, দেশাল ও নিপুণে পেয়ে যাবেন পছন্দের ফাল্গুনের পোশাক। এ ছাড়া বসুন্ধরা শপিং মল, যমুনা ফিউচার পার্ক, কর্ণফুলী গার্ডেন সিটি, মৌচাক মার্কেট, ফরচুন শপিং মল এবং নিউমার্কেট, গাউছিয়া, মিরপুর এক নম্বর মুক্তবাংলা মার্কেট ও দশ নম্বর শাহআলী মার্কেট থেকে বেছে নিতে পারেন বাসন্তী পোশাক।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত