শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কপালে টিপ

আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:৫৮ পিএম

মেয়েদের সাজগোজ টিপ ছাড়া একটু অপূর্ণ থাকে। টিপের উপস্থিতি সাজে পূর্ণতা দেয়। একটা সময় ছিল মেয়েরা সিঁদুর, লিপস্টিক, কুমকুম ও নানা রং দিয়ে টিপ আঁকত। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে টিপের রং, আকার ও ধরনের পরিবর্তন এসেছে। শাড়ির সঙ্গে টিপ সব সময় খুবই মানানসই। কিন্তু এখন আধুনিক যুগে জিন্স, ফতুয়া, কুর্তির সঙ্গেও নানা ধরনের নানা আকৃতির টিপ পরছে সবাই।

টিপের নানা ধরন

গোল টিপের সাজ বরাবরই জনপ্রিয়। এখন টিপের ওপর স্টোন ও রং-তুলির বৈচিত্র্য আনা হয়েছে। আকৃতিতে এসেছে ভিন্নতা, শুধু গোলাকার নয়, লম্বাটে, চারকোনা, স্টার, জ্যামিতিক নকশা, বিভিন্ন চিহ্ন আঁকা, অনেক রকম রঙের বাহারের নকশা মিলছে। সাধারণত এখন উৎসব উপলক্ষে টিপ নির্ধারণ করা হয়। বৈশাখ ও ফাল্গুনে আলপনার নকশাই  বেশি করা হয়। পুতুল, ফুল, লতা-পাতা, নানা রকম নকশা, কখনো টিপের ওপর টিপের আকার বুঝে স্টোন ব্যবহার করা হয়। আবার কাস্টমাইজড টিপও আছে আপনার পছন্দমতো অনেকেই টিপ বানিয়ে দেয়।

পোশাকের সঙ্গে

শাড়ির সঙ্গে টিপ সবচেয়ে বেশি মানায়। দেশি যেকোনো সাজে মুখের মানানসই বুঝে টিপের আকৃতি বেছে নিতে পারেন। গোল মুখে সাধারণত সব আকারের টিপই মানিয়ে যায়। তবে লম্বা আকৃতির টিপে বেশি ভালো লাগে। মুখ লম্বাটে হলে গোল টিপ। কপাল বড় হলে ছোট নয়; মাঝারির চেয়ে একটু বড় টিপ পরা হয়। ছোট কপালে বড় টিপ মানায় না, তাই দুই ভ্রুর মাঝ বরাবর ছোট টিপ পরলে ভালো লাগবে। আর যদি বড় ও মাঝারি টিপ পড়তে চান তাহলে ভ্রু থেকে সামান্য ওপরে পরতে হবে। যাদের জোড়া ভ্রু, তারাও টিপ খানিকটা ওপরে পরতে পারেন।

দাম ও কোথায় পাবেন

সাধারণ আকৃতির টিপ আপনি যেকোনো প্রসাধনীর দোকানে পাবেন। নানা আকৃতি ও বিচিত্র বর্ণ বুঝে টিপের পাতার দাম ১০ টাকা থেকে শুরু করে ৭০ টাকা পর্যন্ত পাবেন। আর ভিন্ন আকৃতির টিপ যেমন লম্বাটে, চারকোনা, স্টার, জ্যামিতিক নকশা, বিভিন্ন চিহ্ন আঁকা, অনেক রকম রঙের বাহারের নকশা, স্টোন ও গোল্ডের টিপ ইত্যাদি পেতে বসুন্ধরা, যমুনা ফিউচার পার্ক, পুলিশ প্লাজা, পিঙ্ক সিটি ও অনলাইন শপে খোঁজ করতে পারেন। এসব টিপের ধরন বুঝে ১৫০ টাকা থেকে শুরু করে তিনশত টাকা পর্যন্ত।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত