বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

রিহ্যাব মেলায় আকর্ষণীয় অফার

আপডেট : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০২:১৯ এএম

নিজ দপ্তরের দুর্নীতিবাজ কর্মীদের সতর্ক করে দিয়ে গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, ‘মন্ত্রণালয়ের কোনো কর্মকর্তা দুর্নীতি করলে তার জায়গা হবে জেলখানায়। সবাই সততার সঙ্গে কাজ করলে করেন, না হলে চাকরি ছেড়ে চলে যান।’ গতকাল বুধবার আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আবাসন ব্যবসায়ীদের সমিতি রিহ্যাবের আয়োজনে আবাসন মেলার উদ্বোধনীতে এ কথা বলেন তিনি। আবাসন ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘কিছু অসাধু ব্যবসায়ী আছেন, যারা মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেন। তারা রাজউকের নিয়ম মানেন না। অনেকে সড়কের পাশের জমিতে ভুয়া সাইনবোর্ড লাগিয়ে প্রতারণা করছে। এদের বিরুদ্ধে আপনারা ব্যবস্থা নেবেন। আপনাদের কারও অপরাধের কারণে যেন বাড়ির মালিক বিপন্ন না হয়। এমনভাবে ভবন নির্মাণ করবেন না, যেন পরবর্তী সময়ে সরকার বা রাজউক সেটা ভেঙে ফেলতে বলে।’

পূর্বাচল বা অন্য জায়গায় স্বল্প আয়ের মানুষদের জন্য ফ্ল্যাট নির্মাণে রিহ্যাবের দাবি করা জমির বিষয়ে রেজাউল করিম বলেন, ‘আমি ভেবে দেখব।’

রিহ্যাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট নুরুন নবী চৌধুরী শাওন বলেন, নানা প্রতিকূলতার মধ্যেও এগিয়ে যাচ্ছে আবাসন ব্যবসা। এ খাতে ঋণের জন্য আগে ৮০০ কোটি টাকার ব্যাংক তহবিল ছিল, এখন সেটি বন্ধ হয়ে গেছে জানিয়ে তিনি ২০ হাজার কোটির টাকার একটি ব্যাংকঋণের তহবিল গঠনের দাবি জানান।

রিহ্যাব সভাপতি আলমগীর শামসুল আলামিনের সভাপতিত্বে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এবং রিহ্যাবের প্রথম সহসভাপতি লিয়াকত আলী ভূঁইয়াসহ শীর্ষ আবাসন ব্যবসায়ীরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সবার বক্তব্য শেষে ফিতা কেটে মেলার উদ্বোধন করেন মন্ত্রী। এরপর আবাসন ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিয়ে মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন তিনি। মন্ত্রী চলে যাওয়ার পর দুপুর ২টার দিকে সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয় আবাসন মেলার ফটক।

মেলায় ৫৪ নম্বর স্টল দিয়েছে দেশের আবাসন খাতের অন্যতম প্রতিষ্ঠান রূপায়ণ গ্রুপ। মেলা উপলক্ষে প্রতিষ্ঠানটি তাদের সব ধরনের ফ্ল্যাট ও প্লটে ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে। রূপায়ণ গ্রুপের উপদেষ্টা সাদাত সেলিম দেশ রূপান্তরকে বলেন, আমাদের উত্তরা ও নারায়ণগঞ্জের ভুইগড়ের আবাসন সিটিতে প্লট ও ফ্ল্যাট বিক্রি চলছে। এ ছাড়া ঢাকার সব প্রাইম লোকেশনে রূপায়ণ গ্রুপের বাণিজ্যিক ও আবাসিক ফ্ল্যাট আছে। আমাদের আপার ও লোয়ার হাউজিং আছে। তবে আমরা চেষ্টা করছি এই দুই ক্লাসকে এক জায়গায় আনতে। তিনি জানান, রাজধানীর বসুন্ধরা, সিদ্ধেশ্বরী, মিরপুর ও উত্তরায় রূপায়ণের ডুপ্লেক্স বাড়ি আছে। এসব বাড়ি আকারভেদে ৬৫ লাখ থেকে ১২ কোটি টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের ডেপুটি ম্যানেজার সায়ফুর রহমান জানান, ঢাকার প্রতিটি প্রাইম লোকেশনসহ নারায়ণগঞ্জ ও চট্টগ্রামে তাদের বাণিজ্যিক ও আবাসিক ফ্ল্যাট আছে। প্রতিটি বাণিজ্যিক ফ্ল্যাটের মূল্য ৭ থেকে ৭০ কোটি টাকা। আবাসিক ফ্ল্যাট বিক্রি হচ্ছে ৬৫ লাখ থেকে ১৬ কোটি টাকায়। মেলা উপলক্ষে তারা মধ্যবিত্তদের জন্য ৫০ হাজার টাকার মাসিক কিস্তিতে গুলশান, ধানম-ি, বনানীর মতো অভিজাত এলাকায় ফ্ল্যাট কেনার সুযোগ দিচ্ছে। কিস্তি পরিশোধ করা যাবে ৫ বছরে।

মেলা উপলক্ষে ফ্ল্যাট কিংবা প্লট বুকিং দিলেই ২৫ শতাংশ মূল্য ছাড়ের সুযোগ দিচ্ছে আরেক আবাসন প্রতিষ্ঠান পূর্বাচল আমেরিকান সিটি। বুকিং দিলেই সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়া ভ্রমণের সুযোগ দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।         

মেলায় প্রবেশের টিকিটের ওপর র‌্যাফেল ড্র’র ব্যবস্থা রেখেছে রিহ্যাব। শেষ দিন ১০ ফেব্রুয়ারি রাত ৯টায় এ ড্র হবে। প্রথম পুরস্কার একটি প্রাইভেটকার, দ্বিতীয় পুরস্কার একটি মোটরসাইকেলসহ মোট ১০টি পুরস্কার দেওয়া হবে।

৬ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে মেলা চলবে ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এবারের মেলায় ২০২টি স্টল স্থান পেয়েছে। মেলায় ২০ বিল্ডিং ম্যাটেরিয়াল ও ১৪টি অর্থলগ্নিকারী প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। এ ছাড়া কো-স্পন্সর হিসেবে অংশ নিয়েছে সর্বমোট ৩০টি প্রতিষ্ঠান।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত