রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সাবেক আইজিপি শাহজাহানের মৃত্যু

আপডেট : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৪:০৬ এএম

পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এ এস এম শাহজাহান আর নেই। গত মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে ঢাকার এ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। সাবেক আইজিপির মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন তার উত্তরসূরি জাবেদ পাটোয়ারী। শাহজাহানের বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। আগামীকাল শুক্রবার রাজারবাগ কেন্দ্রীয় মসজিদে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে তাকে।

শাহজাহানের মেয়ে ডা. উজমা সাইদ জানান, তার বাবা পারকিনসন্স রোগে ভুগছিলেন। শরীরে সংক্রমণও ছড়িয়ে পড়েছিল। অসুস্থতার কারণে তার বাবাকে গত ২৬ জানুয়ারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ও সাবেক আইজিপি শাহজাহান ১৯৪১ সালের ২৪ অক্টোবর নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা প্রয়াত আবদুল আউয়াল ও মা প্রয়াত মেহেরুন নেসা। তিনি ১৯৫৬ সালে নোয়াখালীর দত্তপাড়া হাই স্কুল থেকে ম্যাট্রিকুলেশন, ১৯৫৮ সালে ভিক্টোরিয়া কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট এবং পরবর্তী সময়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৬১ সালে বিকম (সম্মান) এবং ১৯৬২ সালে এমকম ডিগ্রি লাভ করেন।

রাজশাহী ডিগ্রি কলেজ ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন শাহজাহান। তিনি ১৯৬৬ সালে সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পদে চাকরিতে যোগ দেন। চাকরিজীবনে তিনি টাঙ্গাইলের এসডিপিও, কুমিল্লা, খুলনা ও ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার, ডিএমপির প্রথম ডিসি হেডকোয়ার্টার্স, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি, ডিএমপির পুলিশ কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ১৯৯২ সাল থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত আইজিপির দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৯ সালে চাকরি থেকে অবসর নেন তিনি।

শাহজাহান ২০০১ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। অবসর সময়ে তিনি বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় কলাম লিখতেন।

আইজিপির শোক : এ এস এম শাহজাহানের মৃত্যুতে আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তিনি এক শোকবার্তায় বলেন, ‘মরহুম শাহজাহান ছিলেন একজন প্রকৃত দেশপ্রেমিক, পেশাদার, কর্তব্যনিষ্ঠ, দায়িত্বশীল ও সাহসী পুলিশ কর্মকর্তা। তার ত্যাগী ও বন্ধুসুলভ মনোভাবের জন্য তিনি কর্মস্থলে সকলের অত্যন্ত আস্থাভাজন ও প্রিয়ভাজন ছিলেন। কর্মজীবনে তিনি ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় অত্যন্ত সুনাম ও দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন। তার মৃত্যুতে বাংলাদেশ পুলিশ একজন প্রাজ্ঞ অভিভাবক হারাল।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত