রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

বলিউড গ্যাংকে দেখে নেবেন কঙ্গনা

আপডেট : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:৫২ এএম

ঝাঁসির রানি যখন মুখ খোলেন, কঠিন সব বাঁধন আলগা করে দেন। ‘মনিকর্নিকা’ ছবির সাফল্য যেন কঙ্গনা রনৌতকে আরও শক্তিশালী করে দিয়েছে। এবার তার মুখ চেপে ধরে কার সাধ্যি? গত বুধবার নিজের পরিচালিত প্রথম ছবি ‘মনিকর্নিকা’র একটি বিশেষ প্রদর্র্শনীতে হাজির হন তিনি। সেখানে দর্শক ছিল স্কুলের ছোট ছোট ছেলেমেয়ে ও তাদের শিক্ষকরা। ছোটদের উদ্দেশে দারুণ বক্তব্য দেন তিনি। তবে সবশেষে সাংবাদিকদের একাধিক প্রশ্নে কঙ্গনার মুখের বাঁধ ভেঙে যায়। তার তিনি অনায়াসেই বলে ফেলেন অনেক কথা, যা রীতিমতো ভাইরাল। বেশির ভাগ লোকই তার এই সাহসী বক্তৃতার পক্ষে সমর্থন দিচ্ছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে কঙ্গনা বলে ফেলেন, ‘ঝাঁসির রানি লক্ষ্মীবাই কি আমার চাচি? তিনি আমার জন্য যতটুকু, প্রতিটি ভারতীর জন্য ততটুকুই মহত্বপূর্ণ। তাই আমার একার কোনো অধিকার নেই তার জীবনী নিয়ে নির্মিত ছবিতে তাকে ভুলভাবে উপস্থাপন করা। আমি কাউকে ছোট করে বা মিথ্যা কিছু দেখিয়ে টাকা আয় করতে চাইনি। বরং এই ছবি করতে গিয়ে দুটি ছবি বাবদ ২০ কোটি রুপির বেশি টাকার চুক্তি করিনি। এমনকি এই ছবি পরিচালনা করতে কোনো টাকাও পাইনি।’

সাংবাদিকরা তাকে যখন প্রশ্ন করেন, ‘ইদানীং বলিউডে ভালো কোনো ছবি হলে তার ট্রেইলার, গান বা অন্যভাবে প্রচারণা করেন বলিউডের অন্য তারকারাও। কিন্তু আপনার ছবির বেলায় হয় না কেন?’-এতেই রেগে যান কঙ্গনা। তবে সাংবাদিকদের ওপর নন। তার এই রক্তচক্ষু সেই সব তারকাদের ওপরে, যারা বলিউডে একটি গ্যাং তৈরি করে রেখেছেন। কঙ্গনা তাদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমি এতদিন বিচ্ছিন্নভাবে যৌন নিপীড়ন, স্বজনপ্রীতি বা পারিশ্রমিকে সম-অধিকার নিয়ে কথা বলেছি। আর তাতেই সবাই আমাকে আলাদা করে নিজেরা একটা গ্যাং তৈরি করেছে। আমার পেছনে লেগেছে সাবই। তাই আমার সাফল্য তাদের সহ্য হয় না। আমিও এবার তাদের পেছনে ভালোমতো লাগব। এবার তাদের একেকজনের কুকর্ম ফাঁস করব। আমিও বুঝিয়ে দেব, আমি কী ধরনের মেয়ে।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত