মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

২০ হাজারে সেরা ১০ স্মার্টফোন

আপডেট : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০১:১৪ এএম

 

যেকোনো কিছু কেনা বা বেচার ক্ষেত্রেই দেখা যায় বাজেট বিষয়টি চলে আসে। হয় বিক্রেতা জিজ্ঞাসা করেন ক্রেতাকে কেমন বাজেটের ভেতর তিনি পণ্য চাইছেন অথবা ক্রেতা জিজ্ঞাসা করেন বিক্রেতাকে তার বাজেটের মধ্যে কোন পণ্যটা সহজলভ্য আছে। মার্কেটে অনেক মোবাইল কোম্পানি ব্যবসা করে। আবার একেক ব্র্যান্ডের থাকে নানা ভার্সনের মোবাইল। আপগ্রেড ভার্সন ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দিতে প্রতিনিয়ত প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে মোবাইল কোম্পানিগুলো। কাস্টমারকে তাই সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে অনেকটা হিমশিম খেতে হয়। সংশয়ে পড়ে, এটা কিনব নাকি ওইটা।

বাংলাদেশের মোবাইল মার্কেট অনেকটাই দখলে নিয়ে নিয়েছে মাঝামাঝি মূল্যের মোবাইলগুলো। সবচেয়ে ভালোটা চাই কিন্তু দামটা তুলনামূলক কম প্রত্যাশা করি। কম বলতে একেবারে কম না। বিশের আশপাশে সম্মতির একটা অবস্থান থাকে। এ রকম ক্রেতাদের বিবেচনায় রেখেই এরূপ একটা তালিকা করেছেন সাদ্দাম হোসাইন

হুয়াওয়ে Y9 ২০১৮

১৭,৯৯০ টাকা

স্মার্টফোনের বিশ্ববাজারে হুয়াওয়ের অবস্থান দ্বিতীয়। ২০১৮ সালের এপ্রিলে হুয়াওয়ে ওয়াই-নাইন বাজারে আনে। মোবাইলটি বাজারে আসার সঙ্গে সঙ্গেই ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়ে যায়। এমনকি ক্রেতারা প্রচুর পরিমাণে প্রি-অর্ডার করে থাকেন। এর অন্যতম একটি আকর্ষণ হলো চারটি ক্যামেরা, যা মোবাইলটিকে পুরোপুরি স্বতন্ত্রভাবে ক্রেতাদের মানসপটে স্থান করে নিতে সহায়তা করে। পেছনের ক্যামেরা ডুয়েল ১৬+২ মেগাপিক্সেল সঙ্গে এলইডি ফ্ল্যাশ, ফেইস এবং হাসি শনাক্তকরণ, প্যানোরামা ও এইচডিআর। সামনের ক্যামেরা ডুয়েল ১৩+২ মেগাপিক্সেল সঙ্গে এফ/২ এপার্চার, ফুল এইচডি ভিডিও রেকর্ড। মোবাইলটি ব্ল্যাক, গোল্ড ও ব্লু তিনটি কালারে পাওয়া যায়। মোবাইলটির ডিসপ্লে ৫ দশমিক ৯৩ ইঞ্চি এবং র‌্যাম ৩ জিবি, রম ৩২ জিবি। এই ফোনে অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ওরিও v8.0 (EMUI 8। প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ((Octa-core, up tp 2.36 GHz))। দুটি সিম এবং ২৫৬ জিবি পর্যন্ত মাইক্রো এসডি মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে। মোবাইলটিতে আরও আছে ফেইস আনলক, ফিংগার প্রিন্টসহ অনেক কিছু।

শাওমি Mi A2 Lite (4GB)

১৮,৯৯৯ টাকা

ফোর-জি নেটওয়ার্ক সাপোর্টেড শাওমি এমআই এ-টু লাইট মোবাইলটি দিচ্ছে ১৯ দশমিক ৫ ঘণ্টা টকটাইম ব্যাটারি ব্যাকআপ। দিচ্ছে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৬৪ জিবি রম। মোবাইলটিতে মাইক্রো এসডি মেমোরি ব্যবহার করা যাবে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত। এ-টু লাইট দিচ্ছে ডুয়েল ১২+৫ মেগাপিক্সেল পেছনের ক্যামেরা এবং ৫ মেগাপিক্সেল সম্মুখ ক্যামেরা। তিনটি কালারে মোবাইলটি পাওয়া যাবে বাজারে। যেমন : গোল্ড, লেইক ব্লু ও ব্ল্যাক। অ্যালুমিনিয়াম বডির মোবাইলটির ডিসপ্লে ৫ দশমিক ৮৪ ইঞ্চি।

অপ্পো A5

১৯,৯৯০ টাকা

image

অপ্পো এ-ফাইভ দিচ্ছে ১৩+৫ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা। এর সঙ্গে থাকছে ডেপথ সেন্সর, এলইডি ফ্ল্যাশ, ফুল এইচডি (১০৮০পি) ভিডিও কোয়ালিটি। থাকছে ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। ডায়মন্ড ব্লু ও ডায়মন্ড রেড দুটি কালারে পাওয়া যাচ্ছে অপ্পো এ-ফাইভ। মোবাইলটিতে মাইক্রো এসডি মেমোরি ব্যবহার করা যাবে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত। অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ওরেও া৮.১ এবং অক্টো-কোর প্রসেসর। ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৩২ জিবি র‌্যামসমৃদ্ধ মোবাইলটি দিচ্ছে ডুয়েল সিম ব্যবহার এবং ফেইস আনলকের সুবিধা।

স্যামসাং Galaxy J7 Duo

১৮,৯৯০ টাকা

image

৪ জিবি র‌্যাম এবং ৩২ জিবি রমসমৃদ্ধ মোবাইলটি দিচ্ছে ডুয়েল সিম ব্যবহার এবং ফিংগার প্রিন্টের সুবিধা। ব্ল্যাক, গোল্ড, রোজ গোল্ড, হোয়াইট চারটি কালারে পাওয়া যাবে এই ফোনটি। এতে মাইক্রো এসডি মেমোরি ব্যবহার করা যাবে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত। লাইভ ফোকাস এবং ব্যাকগ্রাউন্ড ব্লার শেইপ সুবিধাসহ মোবাইলটি দিচ্ছে ডুয়েল ১৩+৫ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা এবং ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।

মটোরোলা Moto E5 Plus

১৯,৯৯০ ও ১৭,৯৯০ টাকা (১,৫০০-৫,০০০ টাকা পর্যন্ত কেশব্যাক অফার)

বাহারি রঙে পাওয়া যাবে মটোরোলা মোটো ই-ফাইভ প্লাস। যেমন : ব্ল্যাক, ফ্ল্যাশ গরে, মিনারেল ব্লু ও ফাইন গোল্ড। মোবাইলটি দিচ্ছে ৩ জিবি র‌্যাম এবং ৩২ জিবি রম। মোবাইলটিতে মাইক্রো এসডি মেমোরি ব্যবহার করা যাবে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত। অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ওরেও া৮.০ এবং কুয়াড-কোর, ১.৪ এঐু প্রসেসর। ১২ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা এবং ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরাসমৃদ্ধ মোবাইলটি রিলিজ দেওয়া হয় ২০১৮ সালের মে মাসে।

ভিভো Y95

২২,৯৯০ ও ২০,৯৯০ টাকা

গুগল লেন্স, এআই সিন রিকগনিশন এবং আরও নানা আকর্ষণীয় সুবিধাসহ ভিভো ওয়াই ৯৫ দিচ্ছে ডুয়েল ১৩+২ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা এবং ২০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। এই মোবাইলটির ফ্রন্ট ক্যামেরা মোবাইলটিকে বাজারে অন্যান্য মোবাইল থেকে আলাদা করে দেখাতে সমর্থ হয়েছে। এ ছাড়া মোবাইলটিতে রয়েছে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৬৪ জিবি রম। আছে ফিংগার প্রিন্ট এবং ফেইস আনলক সুবিধা। স্ট্যারি ব্ল্যাক এবং নেবুলা পারপল কালারে মোবাইলটি সহজলভ্য। এতে মাইক্রো এসডি মেমোরি ব্যবহার করা যাবে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত।

নকিয়া 3.1 Plus

১৮,৫০০ টাকা

মোবাইলটিতে মাইক্রো এসডি মেমোরি ব্যবহার করা যাবে ৪০০ জিবি পর্যন্ত। ব্লু, হোয়াইট এবং বাল্টিক কালারে পাওয়া যাবে মোবাইলটি। ৩ জিবি র‌্যাম, ৩২ জিবি রম সুবিধাসহ মোবাইলটিতে আছে আরও নানা আকর্ষণীয় ফিচার। মোবাইলটি দিচ্ছে ডুয়েল ১৩+৫ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা এবং ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। ৬ ইঞ্চি ডিসপ্লের মোবাইলটিতে আছে ফিংগার প্রিন্টের সুবিধা।

হেলিও S10

১৮,৯৯০ টাকা

মেটাল ব্ল্যাক এবং গোল্ড কালারে পাওয়া যাবে মোবাইলটি। মোবাইলটিতে মাইক্রো এসডি মেমোরি ব্যবহার করা যাবে ১২৮ জিবি পর্যন্ত। এতে আছে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৩২ জিবি রম। ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চি ডিসপ্লের মোবাইলটিতে আছে ফিংগার প্রিন্টের সুবিধা। ১৩ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা এবং ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা নিয়ে মোবাইটি বাজারে ভালোই জায়গা করে নিয়েছে।

লেনোভো S5

২১,৯৯০ টাকা

লেনোভো এস৫ দিচ্ছে ডুয়েল ১৩+১৩ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা এবং ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। দুটি কালারে পাওয়া যাবে মোবাইলটি যথাক্রমে মিডনাইট ব্ল্যাক এবং ফ্লেইম রেড। মোবাইলটিতে রয়েছে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৬৪ জিবি রম। তাই এটি গতিতে অনন্য। আছে ফিংগার প্রিন্টসহ ডুয়েল সিম ব্যবহারের সুবিধা। মোবাইলটিতে মাইক্রো এসডি মেমোরি ব্যবহার করা যাবে ১২৮ জিবি পর্যন্ত।

আসুস ZenFone 2 ZE551ML

১৬,৯৯০ টাকা

আসুস জেনফোন ২ দিচ্ছে ১৩ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা এবং ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। অসমিয়াম ব্ল্যাক, শিয়ার গোল্ড, গ্ল্যামার রেড, সিরামিক হোয়াইট কালারে পাওয়া যাবে মোবাইলটি। এতে আছে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৬৪ জিবি রম। আছে ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চির করনিং গরিলা গ্লাস প্রোটেকশন। মোবাইলটিতে মাইক্রো এসডি মেমোরি ব্যবহার করা যাবে ৬৪ জিবি পর্যন্ত।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত