শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

আর্থিক খাতে মূল্য সংশোধন

আপডেট : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:৫১ পিএম

টানা দুই সপ্তাহ ধরে পুঁজিবাজারে মূল্য সংশোধনের ধারা চলছে। মূল্য সংশোধনের প্রবণতা চলছে মূলত আর্থিক খাতকে ঘিরে। বিনিয়োগকারীরা মুনাফা তুলে নেওয়ায় ব্যাংক, বিমা ও ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক খাতের শেয়ারের দর কমেছে। একই সঙ্গে কমেছে লেনদেনের পরিমাণও। গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) কেনাবেচা হয়েছে ৪ হাজার ১১৯ কোটি টাকার সিকিউরিটিজ, যা আগের সপ্তাহের চেয়ে ২০ শতাংশ কম। ডিএসইর লেনদেন পর্যালোচনায় এ তথ্য মিলেছে।

পর্যালোচনায় দেখা যায়, উৎপাদনমুখী খাতের শেয়ার দরে কিছুটা ঊর্ধ্বমুখী ধারা বজায় থাকলেও কমেছে ব্যাংকসহ আর্থিক খাতের শেয়ারের দর। মুনাফা তুলে নেওয়ায় গত সপ্তাহে সবচেয়ে বেশি দর হারিয়েছে সাধারণ বিমা খাত। গেল সপ্তাহে এ খাতটি প্রায় সাড়ে ৭ শতাংশ দর হারিয়েছে। এ ছাড়া জীবন বীমা কোম্পানি সাড়ে ৪ শতাংশ, ব্যাংক দেড় শতাংশ ও ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক খাত দুই শতাংশ দর হারিয়েছে। এর বাইরে পাট, বস্ত্র, মিউচুয়াল ফান্ড ও নির্মাণ খাতের অধিকাংশ শেয়ার দর হারিয়েছে। বিপরীতে বিবিধ, ট্যানারি ও টেলিযোগাযোগ খাতের বাজার মূলধন বেড়েছে। এদিকে গত সপ্তাহে অধিকাংশ শেয়ার দর হারালেও আগর সপ্তাহের তুলনায় পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৪৯টি সিকিউরিটিজের মধ্যে দর হারিয়েছে প্রায় ৬০ শতাংশ কোম্পানি। এতে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক কমেছে ৯ পয়েন্ট। আগের সপ্তাহে এ সূচকটি ১২০ পয়েন্ট হারিয়েছিল। গত সপ্তাহে প্রধান মূল্যসূচক কমলেও ডিএসই-৩০ ও শরিয়াহ সূচক সামান্য বেড়েছে। টানা দুই সপ্তাহ পুঁজিবাজারে মূল্য সংশোধন চলায় বিনিয়োগকারীরা লেনদেনে কিছুটা সতর্কতা অবলম্বন করছেন। এতে লেনদেনে প্রভাব পড়েছে। আগের সপ্তাহের তুলনায় ডিএসইতে শেয়ার কেনাবেচার পরিমাণ ২০ শতাংশ কমেছে। দৈনিক গড় লেনদেন এক হাজার ৩৪ কোটি টাকা থেকে গত সপ্তাহে ৮২৩ কোটি ৯৫ লাখ টাকায় নেমে এসেছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত