মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

মশাকে বশ মানানোর ওষুধ

আপডেট : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:৫২ পিএম

কয়েল, স্প্রে, মশারিসহ বিভিন্ন উপকরণ ব্যবহার করেও অনেক সময় মশার উৎপাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায় না। ফলে অস্বস্তি নিয়েই দিনাতিপাত করতে হয় লোকজনকে। এ থেকে রেহাই পাওয়ার একটি উপায় খুঁজে বের করেছেন বিজ্ঞানীরা। মশাকে বশে আনতে তারা ব্যবহার করেছেন ওজন কমানোর ওষুধ।বিবিসির খবরে জানানো হয়, নিউ ইয়র্কের রকফেলার বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক ‘ডায়েট ড্রাগস’ (ওজন কমানোর ওষুধ) ব্যবহার করে মশার কামড় কমাতে সক্ষম হয়েছেন বলে জানিয়েছেন। এ গবেষণা এখনো শুরুর দিকে রয়েছে। বিজ্ঞানীদের ধারণা, ওষুধটির প্রয়োগ সফল হলে তা জিকা বা ম্যালেরিয়ার মতো মশাবাহিত রোগ নিয়ন্ত্রণে কাজে লাগানো যাবে।বিজ্ঞানীদের ভাষ্য, পশ্চিমা বিশ্বে ওজন কমাতে বেশ জনপ্রিয় ডায়েট পিল। সেটি মশার ওপরও কাজ করেছে। গবেষকরা এডিস মশার ওপর পরীক্ষা চালিয়েছেন। সাধারণত স্ত্রী প্রজাতির মশা মানুষকে কামড়ায়। এ প্রজাতির স্ত্রী মশা অন্য প্রাণীর চেয়ে মানুষের প্রতি বেশি আকর্ষণ বোধ করে। কারণ মানুষের রক্তে একটি বিশেষ প্রোটিন রয়েছে যা এডিস মশার ডিম উৎপাদনে সহায়তা করে। ডায়েট পিলের কাজ হলো মানুষের খাওয়ার আগ্রহ কমিয়ে দেওয়া।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, তারা যখন মশাকে ডায়েট পিল মেশানো স্যালাইনজাতীয় খাবার দিয়েছেন, তখন পতঙ্গটির রক্ত খাওয়ার রুচি বেশ কমে যায়। মশাদের রক্ত খাওয়ার মাত্রা পরিমাপ করতে বিজ্ঞানীরা মানুষের শরীরের দুর্গন্ধযুক্ত নাইলনের মোজা ঝুলিয়ে  দিয়েছিলেন। মশারা এমন মোজার প্রতি সাধারণত খুবই আকর্ষণ বোধ করে। কারণ তারা খাবারের গন্ধ পেতে থাকে ও রক্ত খেতে উদগ্রীব হয়ে পড়ে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত