রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

শীতল আবহাওয়ায় অকেজো বৈদ্যুতিক গাড়ি

আপডেট : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০১:১৮ এএম

নতুন এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, শীতল পরিবেশে বৈদ্যুতিক গাড়ি চলাচলে বাধাগ্রস্ত হয়। গবেষকরা দেখেছেন, যখন তাপমাত্রা কমে যায়, তখন বৈদ্যুতিক গাড়ির দক্ষতাও কমে যায়। বিশেষ করে তাপমাত্রা ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে চলে এলে এই তারতম্য

বোঝা যায়। আমেরিকান অটোমোবাইল অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে সমীক্ষাটি পরিচালনা করা হয়েছে।

অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে বলা হয়, আবহাওয়া যখন ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে যায়, তখন বৈদ্যুতিক গাড়িটিকে গরম রাখতে এর হিটিং সিস্টেম কাজ শুরু করে। এতে গাড়িটির পারফরম্যান্স ৪১ শতাংশ পর্যন্ত নেমে যেতে পারে।

অ্যাসোসিয়েশনের কর্মকর্তা ম্যারি ডডস বলেন, ‘শীতল অঞ্চলগুলোয় যারা বসবাস করেন এবং তাদের মধ্যে যারা বৈদ্যুতিক গাড়ি চালান, তাদের অবশ্যই জানা উচিত কীভাবে ঠান্ডা আবহাওয়া তাদের গাড়িগুলোর চলাচলের ওপর প্রভাব ফেলতে পারে।’

ব্যাটারি শুধু বৈদ্যুতিক গাড়ি চলাচলের জন্যই ব্যবহৃত হয় না, বরং গাড়িটিকে গরম রাখতেও এটি কাজ করে। যুক্তরাষ্ট্রের ওরেগনের মতো শীতল রাজ্যগুলোতে এরই মধ্যে অটোমোবাইল অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এ অবস্থায় গাড়িকে গরম রাখার জন্য বৈদ্যুতিক গাড়ির বাড়তি চার্জ নেওয়ারও পরামর্শ দেওয়া হয়, যেন পথিমধ্যে ব্যাটারি অকার্যকর না হয়ে যায়।

১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ওরেগন অঙ্গরাজ্যে প্রায় ১৮ হাজার ১৫৮ বৈদ্যুতিক গাড়ি নথিভুক্ত হয়েছে।

বৈদ্যুতিক গাড়ির পারফরম্যান্স নিয়ে চালানো পরীক্ষাটিতে পাঁচটি গাড়িকে পর্যবেক্ষণ করা হয়।

চলন্ত অবস্থায় গাড়িকে হিটিং সিস্টেমের মাধ্যমে কখন গরম করতে হবে এবং ভেন্টিলেশনের মাধ্যমে কখন শীতল করতে হবে, তা নিয়ে পরীক্ষা চালানো হয়েছিল। মূলত ইঞ্জিনের তাপমাত্রা ৭৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত পৌঁছে গেলেই এটিকে শীতল রাখার কার্যক্রম শুরু করতে হয়।

বিএমডব্লিউ আই৩এস-২০১৮, শ্যাভরোলেট বোল্ট-২০১৮, নিশান লিফ-২০১৮, তেসলা মডেল এস ৭৫ডি-২০১৭ এবং ভক্সওয়াগন ই-গল্ফ ২০১৭ মডেলের গাড়িগুলো পরীক্ষার আওতায় আনা হয়েছিল।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত