রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

স্ত্রীর ‘পরকীয়ায়’ মেয়েকে হত্যা করলেন বাবা

আপডেট : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:১০ পিএম

গাজীপুরের শ্রীপুরে স্ত্রীর ‘পরকীয়ায়’ হতাশ হয়ে নিজের ছয় বছরের শিশু সন্তানকে গলাটিপে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন রফিকুল ইসলাম (২৮) নামে এক ব্যক্তি।

রোববার বিকেলে রফিকুল তার একমাত্র মেয়ে মনিরা খাতুনকে শ্বাসরোধে হত্যার পর মরদেহ ঘরের খাটের নিচে পাতিলের ভেতর লুকিয়ে রেখে পালিয়ে যান।

সোমবার ভোরে গাজীপুর মহানগরের নীলেরপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এদিন বিকেলে গাজীপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শামীমা খাতুনের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় রফিকুল।

রফিকুলের জবানবন্দির উদ্ধৃতি দিয়ে শ্রীপুর থানার এসআই মাহমুদুল হাসান দেশ রূপান্তরকে জানান, ‘রফিকুলের সঙ্গে তার স্ত্রী নাসরিন আক্তারের এটি ছিল তৃতীয় বিয়ে। প্রথম ও দ্বিতীয় স্বামীর সঙ্গে সম্পর্কের ইতি টেনে ২০১২ সালে ভালোবেসে রফিকুলকে বিয়ে করেন নাসরিন। বিয়ের দুই বছর পর ২০১৪ সালে রফিকুল চাকরির জন্য ওমান যান। রফিকুল প্রবাসে থাকার সময় মনিরার জন্ম হয়। মনিরার জন্মের পরপরই নাসরিন এক যুবকের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। এ খবর পেয়ে দেশে ফেরেন রফিকুল। তখন থেকেই দুজনের মধ্যে প্রায়ই কলহ লেগে থাকত।’

‘২০১৭ সালে এক গার্মেন্টস কর্মীর সঙ্গে নাসরিন নিরুদ্দেশ হয়ে যান। চার মাস পর ফিরে এসে আবারো রফিকুলের সাথে সংসার শুরু করে তিনি। তখন নাসরিন আর কোন ছেলের সাথে ‘পরকীয়া’ করবেন না বলে স্বামীকে কথা দেন। এরপর তারা বাসা বদল করে শ্রীপুরের গিলারচালা গ্রামে এসে বসবাস শুরু করেন।’

‘তারা দুজনই স্থানীয় ডেনিম্যাক গার্মেন্টস্ লিমিটেডে চাকরি নেন। কিন্তু ওই কারখানার এক সহকর্মীর সঙ্গে আবারো ‘পরকীয়ায়’ জড়িয়ে পড়ে নাসরিন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া করে বাসা থেকে বের হয়ে যান রফিকুল। পরে মেয়ে মনিরাকে হত্যার পর নিজে আত্মহত্যার পরিকল্পনা নিয়ে শনিবার বিকেলে বাসায় ফেরেন তিনি। ওই দিন সন্তানকে হত্যার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন রফিকুল। পরদিন বিকেলে বাসা ফাঁকা পেয়ে মনিরাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন তিনি।’

মনিরা স্থানীয় মোহাম্মদ আলী কিন্ডার গার্টেনের প্লে শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল। তার বাবা রফিকুল গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার চাপাত গ্রামের মৃত মাইন উদ্দিনের ছেলে।

শ্রীপুর থানার ওসি জাবেদুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় নাসরিন আক্তার বাদী হয়ে রফিকুলকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেছেন।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত