সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ভারতে নাম্বার ওয়ান শাওমি

আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:৫৮ পিএম

ভারতের স্মার্টফোন বাজারে গত বছরটি ছিল শাওমির। ২০১৮ সালে ভারতে যে পরিমাণ স্মার্টফোন কেনাবেচা হয়, আর্থিক দিক থেকে তার ২৮ দশমিক ৯ শতাংশই ছিল চীনা নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটির দখলে। এই পরিসংখ্যানে দুই নম্বরে ছিল দক্ষিণ কোরিয়ার ব্র্যান্ড স্যামসাং। বাজারের ২২ দশমিক ৪ শতাংশ শেয়ার ছিল স্যামসাংয়ের দখলে। আর ১০ শতাংশ শেয়ার দখলে রেখে তৃতীয় অবস্থানে ছিল ভিভো। গতকাল মঙ্গলবার এই পরিসংখ্যানটি প্রকাশ করে ইন্টারন্যাশনাল ডেটা করপোরেশন (আইডিসি)।

২০১৭ সালে ভারতের বাজারে সবচেয়ে বেশি শেয়ার ছিল স্যামসাংয়ের। ২০১৮ সালে শাওমি প্রায় ৪ কোটি ১১ লাখ মোবাইল বিক্রি করেছে, আগের বছরের তুলনায় যা প্রায় ৫৯ শতাংশ বেশি। এ ছাড়া আগের বছরের তুলনায় ২০১৮ সালে ভারতের স্মার্টফোন বাজার ১৪ দশমিক ৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে স্মার্টফোনের বিশ্ববাণিজ্যে ৪ শতাংশ ছিল ভারতের দখলে।

আইডিসির তথ্য অনুযায়ী ভারতের বাজারে শাওমি, স্যামসাং ও ভিভো ছাড়াও সেরা পাঁচে থাকা অন্য দুটি ফোন হলো অপ্পো ও ট্রানসান। ফলে দেখা যাচ্ছে, ভারতীয় স্মার্টফোন বাজারে চীনের আধিপত্য সবচেয়ে বেশি। কারণ সেরা পাঁচে থাকা স্যামসাং ছাড়া বাকি চারটিই চীনা প্রতিষ্ঠানের। এই চারটি কোম্পানিই ভারতীয় বাজারের অর্ধেক শেয়ার নিজেদের দখলে রেখেছিল।

আইডিসি প্রতিবেদনে বলা হয়, রেডমি সিরিজের ফোন, অনলাইন মার্কেটিংয়ে সাফল্য এবং প্রত্যন্ত এলাকাগুলোতে ব্যাপক প্রচারণার মাধ্যমে শীর্ষ স্থান দখল করে নিয়েছে শাওমি। নিজ দেশ চীনের চেয়েও ভারতে ৩৪ শতাংশ বেশি স্মার্টফোন বিক্রি করেছে এই কোম্পানিটি।

আইডিসি ইন্ডিয়ার অ্যাসোসিয়েট রিসার্চ ম্যানেজার উপাসনা জোশি বলেন, ‘আগের বছরের তুলনায় গত বছর স্মার্টফোন বাজারে ৪৩ দশমিক ৯ শতাংশ শেয়ার বেশি বিক্রি হয়েছে। দামের দিক থেকে ওয়ান প্লাস স্মার্টফোনের রেঞ্জ ছিল সবচেয়ে বেশি। গড়ে এর প্রতিটি মোবাইলের দাম ছিল ৫০০ থেকে ৭০০ ডলারের মধ্যে। আর গ্যালাক্সি এস-নাইন সিরিজ দিয়ে অ্যাপলকে টেক্কা দিয়েছে স্যামসাং।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত