সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

#মি টু নিয়ে নুসরাত ফারিয়া

আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:০৯ পিএম

জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা, মডেল ও উপস্থাপিকা নুসরাত ফারিয়া। তবে তার জনপ্রিয়তা অনেকাংশেই বেড়ে যায় ক্যারিয়ারের গোড়ার দিকে রেডিওতে আরজে হিসেবে কাজ করে। দীর্ঘদিন আর রেডিওর পথ মাড়াননি তিনি। তবে মনে মনে মিস করেছেন রেডিওর মাইক্রোফোন। এমনকি রেডিওতে কথা বলতে তিনি খুব স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। এটা যেন তার আপন ভুবন! তবে ফারিয়াভক্তদের জন্য সুখবর। অচিরেই প্রিয় তারকার কণ্ঠ তারা নিয়মিত শুনতে পাবেন রেডিওতে।

যৌন হেনস্থার বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে উঠেছে পুরো পৃথিবী। হলিউড থেকে শুরু হওয়া ‘হ্যাশট্যাগ মি টু’ আন্দোলন বলিউড হয়ে প্রবেশ করেছে বাংলাদেশেও। এরই মধ্যে বেশ কয়েকজন তারকা নিজেদের যৌন হেনস্থা হওয়ার কথা জানিয়েছেনও। শুধু তারকা নয়, সমাজের নানা স্তরের মানুষেই যৌন হেনস্থার শিকার হন। বাদ যাচ্ছে না বাচ্চা ছেলেমেয়েরা। এবার যৌন হেনস্থার কথা নিয়ে হাজির হবেন নুসরাত ফারিয়া! না, নিজের কোনো তিক্ত অভিজ্ঞতা নয়, বরং অন্যের জীবনে ঘটে যাওয়া তিক্ততার কথায় তিনি শ্রোতাদের শোনাবেন। সমাজের নানা স্তরের ছেলেমেয়েদের যৌন হেনস্থার কথা জানাতে হাজির হবেন জনপ্রিয় এই চিত্রনায়িকা। ‘হ্যাশট্যাগ মি টু’ নামের একটি রেডিও অনুষ্ঠানে তিনি ছেলেমেয়েদের যৌন হেনস্থার কথা জানাবেন। অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা এবং মূল পরিকল্পনা করেছেন আরজে রাসেল।

ফারিয়া জানান, সমাজের সব বয়সের ছেলেমেয়েদের জীবনে এমন কিছু ঘটনা ঘটে, তা কেউ কাউকে বলতে পারে না। এই না বলা কথা নিয়েই এই অনুষ্ঠান। এখানে মানুষের না বলা এসব গল্প দর্শক-শ্রোতাদের শোনানো হবে। এর পাশাপাশি অনুষ্ঠানে আগতদের জন্য একটি দিকনির্দেশনাও থাকবে বলে জানান এই দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী।

রেডিও চ্যানেলের পাশাপাশি ইউটিউব ও টেলিভিশনেও দেখানো হবে অনুষ্ঠানটি। আগামী মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে সরাসরি প্রচার হবে ৫২ পর্বের অনুষ্ঠানটি।প্রবাসী বাংলাদেশিরাও অডিও ও ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তাদের না বলা কথা জানাতে পারবেন অনুষ্ঠানটিতে। তবে, যারা অনুষ্ঠানে তাদের গল্প বলতে আসবেন, তাদের নাম-পরিচয় গোপন থাকবে। ভিডিওতেও তাদের চেহারা দেখানো হবে না।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত