রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ম্যানইউকে থামাল পিএসজি

আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:৫৪ এএম

ওলে গানার সোলসকায়ের প্রথম পরীক্ষায় পাস করতে পারলেন না। মঙ্গলবার রাতে তার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ২-০ গোলে হেরেছে ইনজুরিপীড়িত প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) কাছে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে জয়ের ফলে ইউরোপসেরা হওয়ার স্বপ্ন দেখছে ফরাসি জায়ান্টরা। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে প্রথম লেগে খেলতে পারেননি নেইমার ও এডিনসন কাভানি। তারা দুজন থাকলে কী হতো তাই নিয়ে আফসোস করতে পারে পিএসজিভক্তরা।

ম্যানইউর বিপক্ষে মঙ্গলবার গোল করেছেন প্রিসনেল কিমপেমবে ও কিলিয়ান এমবাপে। ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্য ছিল। আক্রমণ-প্রতিআক্রমণে ম্যাচ এগোতে থাকলেও দুই দলই খেলছিল সাধারণমানের ফুটবল। দ্বিতীয়ার্ধে পরিস্থিতি বদলে যায়। ৫৩ মিনিটের মাথায় গোলের দেখা পান কিমপেমবে। কর্নার থেকে হাওয়ায় বল ভাসিয়েছিলেন ডি মারিয়া। সেটাই অপূর্ব দক্ষতায় গোলে পরিণত করেন কিমপেমবে। প্রথম গোলের ৭ মিনিটের মাথায় দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় পিএসজি। গোল করেন এমবাপে। তবে দ্বিতীয় গোলের বলটাও তৈরি করে দেন ডি মারিয়া। ৬০ মিনিটে তার নিচু করে বাড়ানো বল থেকে গোল করতে ভুল করেননি এমবাপে। দুই গোলে পিছিয়ে পড়ার পর আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি স্বাগতিকরা। দ্বিতীয়ার্ধে তাদের কয়েকটি আক্রমণ ব্যর্থ হয়। উপরন্তু দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখায় ৮৯ মিনিটে মাঠ ছাড়তে হয় পল পগবাকে। অতিরিক্ত সময়ে ম্যানইউর পক্ষে আর গোল শোধ করা সম্ভব ছিল না।

প্রতিযোগিতামূলক কোনো টুর্নামেন্টে

প্রথমবারের মতো দেখা হয়েছিল দুই দলের। আর প্রথম দেখায় ম্যানইউকে হারিয়ে জয় তুলে নিয়েছে পিএসজি। তাছাড়া সোলসকায়ের গত ডিসেম্বরে হোসে মরিনহোর কাছ থেকে দায়িত্ব নেওয়ার পর ১১ ম্যাচের মধ্যে ১০টিতে জয় পেয়েছিল রেড ডেভিলরা। একটা ম্যাচ ড্র হয়। মঙ্গলবার পিএসজির ম্যাচটি ছিল সোলসকায়েরের অধীনে ম্যানইউর ১২তম ম্যাচ। এই ১২তম ম্যাচে এসে হারের তিক্ত স্বাদ পেলেন সোলসকায়ের।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত