শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কাশ্মীরে নিষিদ্ধ হলো জামায়াত

আপডেট : ০১ মার্চ ২০১৯, ০৯:৪৯ এএম

স্বাধীনতা সংগ্রামকে সমর্থন দেওয়ায় কাশ্মীরের জামায়াত-ই-ইসলামী পার্টিকে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ভারত সরকার।

পাকিস্তানের প্রভাবশালী গণমাধ্যম ডন জানায়, পাকিস্তানের সঙ্গে চলমান সংঘাতের মধ্যেই দলটিকে বৃহস্পতিবার নিষিদ্ধ করল ভারত।

একজন পুলিশ কর্মকর্তা রয়টার্সকে জানান, পুলওয়ামায় সেনাবহরে গাড়িবোমা হামলার পর সাম্প্রতিক দিনগুলোতে জামায়াতের প্রায় ৩০০ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এনিয়ে তৃতীয়বারের মতো কাশ্মীরের জামায়াত-ই-ইসলামী পার্টিকে নিষিদ্ধ করল ভারত। দলটি ভারত থেকে কাশ্মীরের স্বাধীনতা চায়।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় একটি বহরে আত্মঘাতী গাড়িবোমা হামলা চালালে ৪৯ জন সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স-সিআরপিএফ জওয়ান নিহত হন।

কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদ ভিডিও ও ছবি শেয়ার করে ওই হামলার দায় স্বীকার করে। পাকিস্তানের সহায়তা ও পৃষ্ঠপোষকতায় এ হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করে ভারত। পাকিস্তান তা নাকচ করে দেয়।

এরই মধ্যে মঙ্গলবার ভোররাতে পাকিস্তানের সীমান্ত অতিক্রম করে ১২টি ভারতীয় যুদ্ধবিমান কথিত জইশ-ই-মুহাম্মদের ঘাঁটিতে হামলা চালালে দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে যুদ্ধাবস্থা সৃষ্টি হয়।

বুধবার সকালে ভারতের আকাশসীমায় হানা দেয় ২৪টি পাকিস্তানি যুদ্ধবিমান। এসময় ভারতের দুটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত এবং এক পাইলটকে আটকের দাবি করে পাকিস্তান। ভারতও পাকিস্তানের একটি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার দাবি করে।

অবশ্য পাকিস্তান দাবি করেছে, তাদের কোনো যুদ্ধবিমান ভূপাতিত হয়নি এবং ওই অভিযানে এ ধরনের কোনো যুদ্ধবিমান ব্যবহার করেনি তারা।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত