বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

বিজিএমইএ নির্বাচন

স্বাধীনতা পরিষদের ওপর হামলা

আপডেট : ০২ মার্চ ২০১৯, ০২:৩৯ পিএম

পোশাক মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ’র নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিতে গিয়ে স্বাধীনতা পরিষদ প্যানেলের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা হামলার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। হামলার প্রতিবাদে শনিবার বিকেল ৩টায় কাওরানবাজারে মানববন্ধন কর্মসূচি ডেকেছেন এ প্যানেলের নেতারা।

স্বাধীনতা পরিষদ প্যানেলের প্রধান ও ডিএসএল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম দেশ রূপান্তরকে বলেন, ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী শনিবার বিজিএমইএ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। আমরা মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে চলে আসি। আমাদের কিছু স্টাফ রিসিভ কপি আনার জন্য সেখানে অপেক্ষা করেন। পরে রিসিভ কপি নিয়ে তারা বিজিএমইএ থেকে বের হওয়ার সময় তাদের ওপর হামলা হয়। মারধর করে তাদের কাছ থেকে রিসিভ কপির কাগজগুলো ছিনিয়ে দেয়।

তিনি বলেন, “ঘটনার পর নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে আমরা কথা বলেছি। তারা স্বীকার করেছেন যে, আমাদের মনোনয়ন ফরম পেয়েছেন। হামলার প্রতিবাদে বিকেল ৩টার দিকে কাওরানবাজারে মানববন্ধন করবো আমরা।”

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিজিএমইএ’র সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান দেশ রূপান্তরকে বলেন, “আমি সকাল ১১টা থেকে বিজিএমইএ ভবনে আছি। তখন থেকে অফিসের ভেতরে কারও ওপর কোনো হামলার ঘটনা ঘটেনি। অফিসের বাইরে কেউ হামলার শিকার হলে তার দায় আমাদের নয়।”

২০১৩ সালের নির্বাচনের পর ২০১৫ সালে সমঝোতার ভিত্তিতে কমিটি গঠন করে বিজিএমইএ’র দুই প্যানেল সম্মিলিত পরিষদ ও ফোরাম।

বর্তমান সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান সম্মিলিত পরিষদের নেতা। তাদের ওই সমঝোতা অনুযায়ী, এবার ফোরাম থেকে সভাপতি হওয়ার কথা। তবে স্বাধীনতা পরিষদ নামে পৃথক একটি প্যানেল নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দেওয়ায় ওই দুই প্যানেল স্বাধীনতা পরিষদের উপর ক্ষুব্ধ। 

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত